kalerkantho


এই দাবি বিশ্ববিবেকের কাছে

১১ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



দেরিতে হলেও ২৫ মার্চ কালরাতের গণহত্যার ইস্যুটি সামনে চলে এসেছে। দাবি উঠেছে, সেই ভয়াল গণহত্যার দিনটিকে আন্তর্জাতিক গণহত্যা দিবস ঘোষণা করতে হবে। জাতিসংঘের কাছে এই দাবি। এ দাবির সমর্থনে হাজারো যুক্তি দেখানো যাবে। শুধু ২৫ মার্চ রাজধানী ঢাকা নগরীতে এক রাতে ৩০ হাজারেরও বেশি লোককে হত্যা করা হয়েছে। প্রশ্ন উঠতে পারে এত পরে কেন দাবিটি সামনে আনা হলো। জবাব হলো, যে কারণে যুদ্ধাপরাধের বিচারটি দেরি হয়েছে, সেই একই কারণে এই দাবিও সামনে আনতে দেরি হয়েছে। আমরা দাবি করছি জাতিসংঘের কাছে, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের বিবেকের কাছে ও সভ্যতার কাছে। আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তাঁর সরকারের কাছে আমাদের আকুল আবেদন, আন্তর্জাতিক অঙ্গনে দাবিটি উত্থাপন করুন। বিশ্ববিবেক যদি মনে করে মানবজাতি সভ্যতার যুগে বসবাস করছে, তাহলে আমাদের দাবি অবশ্যই মেনে নেবে। এই দাবি না মানা মানেই আন্তর্জাতিক মানবাধিকার, গণতন্ত্র, আইনের শাসন, ধর্মীয় অনুশাসন ও সামাজিক অগ্রযাত্রা সব মুখ থুবড়ে পড়া।

আমরা জানি, মানুষের স্বভাবজাত ধর্ম হলো মানুষ সামনে এগিয়ে চলে। জ্ঞান-বিজ্ঞানের প্রসার মানুষের সামাজিক, রাষ্ট্রিক, অর্থনৈতিক ও সাংস্কৃতিক অগ্রযাত্রা নিশ্চিত করে। এভাবেই সভ্যতা এগিয়ে চলে। তাই আমি মনে করি, সরকার যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে তা যথার্থ ও যুগোপযোগী। ২৫ মার্চও গণহত্যা দিবস হিসেবে স্বীকৃতি পাক।

 

এস এম রওনক রহমান আনন্দ

স্কুলপাড়া, বিমানবন্দর সড়ক, ঈশ্বরদী, পাবনা।


মন্তব্য