kalerkantho


মাথা নত করা যাবে না

১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



সবার আস্থা ও বিশ্বাসযোগ্যতা অর্জন করাই নতুন নির্বাচন কমিশনের এই মুহূর্তের সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। নতুন নির্বাচন কমিশন নিয়ে এরই মধ্যে বিতর্ক শুরু হয়েছে। অথচ সামনে আছে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন। সেই নির্বাচন সামনে রেখে প্রয়োজন হলে আইন-কানুন পরিবর্তন করতে হবে। এটাও আরেকটা চ্যালেঞ্জ। কমিশনকে সব দলের সঙ্গে বসতে হবে, সব দলের আস্থা অর্জন করতে হবে। অবশ্য দলগুলোকেও নির্বাচন কমিশনকে সহায়তা করতে হবে। আর কথার চেয়ে কাজের মাধ্যমে যোগ্যতা ও আস্থা প্রমাণ করাটা সবচেয়ে বেশি জরুরি। রাষ্ট্রপতি তাঁর দায়িত্ব পালন করেছেন। যে প্রক্রিয়ায় নির্বাচন কমিশন গঠন করা যথার্থ মনে করেছেন, সেটিই তিনি করেছেন। তবে সর্বোত্তম চিন্তা ও চেষ্টা থেকে করলেও কেউ না কেউ সন্দেহ প্রকাশ করবে, কেউ কেউ তা করছেও।

আমাদের রাজনৈতিক সংস্কৃতির অবক্ষয় হয়েছে। সেখানে পারস্পরিক সন্দেহ ও অবিশ্বাস প্রকট। নবগঠিত কমিশনের কাছে আমাদের প্রত্যাশা হচ্ছে, অর্পিত পবিত্র ও নৈতিক দায়িত্বটি তাঁরা সততার সঙ্গে পালন করবেন। তবে নির্বাচন কমিশনের একার পক্ষে সুষ্ঠু নির্বাচন করা সম্ভব নয় যদি রাজনৈতিক দলগুলোর সহযোগিতা ও সদিচ্ছা এর সঙ্গে যুক্ত না হয়। নতুন কমিশন কাজ শুরু করলে তাদের কাজের গতি-প্রকৃতি দেখে মূল্যায়ন করা যাবে। জনগণ ও নাগরিক সমাজের দায়িত্ব তাঁদের নজরদারির মধ্যে রাখা। নতুন নির্বাচন কমিশনের উচিত সংবিধান, আইন ও বিধিবিধান মেনে কাজ করা। সীমার বাইরে যাওয়া ঠিক নয়। ভয়, চাপ বা আনুকূল্যের কাছে মাথা নত না করে কমিশনকে দায়িত্ব পালন করতে হবে।

 

এস এম সাইদুর রহমান উলু

এয়ারপোর্ট রোড, ঈশ্বরদী, পাবনা।


মন্তব্য