kalerkantho


রাজনৈতিক ঐক্যই সমাধান

৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



বাংলাদেশে বিভিন্ন কমিশন (দুর্নীতি দমন, তথ্য ও মানবাধিকার ইত্যাদি) গঠনের জন্য সংশ্লিষ্ট আইনগুলোতে অনুসন্ধান কমিটি গঠনের বিধান রয়েছে। কিন্তু এসব আইন ত্রুটিপূর্ণ। ভারত ও পাকিস্তানে বিভিন্ন সার্চ কমিটিতে বিরোধী দলগুলোর মতামতের প্রতিফলন ঘটে। কিন্তু বাংলাদেশের আইনগুলোতে অনুসন্ধান কমিটিতে প্রধানত ক্ষমতাসীন সরকারের আস্থাভাজনরাই প্রাধান্য পেয়ে থাকেন। অতীতে অনুসন্ধান কমিটিগুলো সেভাবেই গঠিত হয়েছিল। ফলে অতীতে দুর্নীতি দমন কমিশনকে দেখা গেছে সাধারণত বিরোধী দলের নেতাদের দুর্নীতি খুঁজে বেড়াতে, মানবাধিকার কমিশনকে দেখা গেছে কোনো কোনো ক্ষেত্রে উল্টো সরকারের মানবাধিকারবিরোধী কার্যক্রমকে সমর্থন করতে, তথ্য কমিশনকেও দেখা গেছে একপর্যায়ে নির্জীব প্রতিষ্ঠানে রূপ নিতে। বাংলাদেশের রাজনীতিতে অবিশ্বাস ও বিভাজন এমন প্রকট রূপ ধারণ করেছে যে আওয়ামী লীগ কারো নাম পাঠালে বিএনপি সাত-পাঁচ না ভেবে তাকে আওয়ামী লীগের লোক হিসেবে চিহ্নিত করে বসবে। আবার একই কাজ বিএনপি কারো নাম প্রস্তাব করলে আওয়ামী লীগ  বিএনপির লোক চিহ্নিত করে বসবে। অনুসন্ধান কমিটি নাম পাঠানোর ক্ষেত্রে তখন কিভাবে ভারসাম্য বিধান করবে?

 

মাওলানা মুহাম্মদ আবদুল্লাহ আল হাদী

ব্যাংক কলোনি, সাভার, ঢাকা।


মন্তব্য