kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


নবীন নেতৃত্বে দল গতিশীল হবে

২২ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



এটিই সেই দল, যার বলিষ্ঠ নেতৃত্ব আমাদের স্বাধীনতা এনে দিয়েছিল। বাংলার স্বাধীনতার স্বপ্নদ্রষ্টা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, সৈয়দ নজরুল ইসলাম ও তাজউদ্দীন আহমদের মতো নেতারা জীবনের শেষ দিবস পর্যন্ত এ দলকেই নেতৃত্ব দিয়েছেন।

এবারের কাউন্সিলে যদিও সভাপতি হিসেবে শেখ হাসিনার বিকল্প কোনো ভাবনা দল ও নেতাকর্মীদের মনে নেই, সম্ভাবনা নেই সাধারণ সম্পাদক হিসেবে সৈয়দ আশরাফুল ইসলামেরও পরিবর্তনের। এর পরও গুরুত্বপূর্ণ পদ নিয়ে নেতাকর্মীদের মধ্যে চলছে গুজব-গুঞ্জন ও আলোচনা। সময়ের বাস্তবতায় একদিন শেখ হাসিনা যখন অবসরে যাবেন তখন যেন দলের নেতৃত্ব ‘খেই’ হারিয়ে না ফেলে সে জন্য উপযুক্ত নেতৃত্ব দিতে এখনই প্রধানমন্ত্রীপুত্র সজীব ওয়াজেদ জয়কে দলের নীতিনির্ধারণী পর্যায়ে দায়িত্বে আনা হোক। বিশেষ করে আওয়ামী রাজনীতির মূল শক্তি সাবেক ছাত্রলীগের নেতারা, যাঁরা মূল দলে অপেক্ষাকৃত তরুণ, তাঁদের দাবি ও প্রত্যাশা এবারের সম্মেলনের মাধ্যমেই জয় আওয়ামী রাজনীতিতে সক্রিয় হবেন। পারিবারিক রাজনৈতিক ঐতিহ্য, ব্যক্তিগত বিচক্ষণতা, প্রজ্ঞার কারণেই রাজনৈতিক অঙ্গনের তরুণসমাজের কাছে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছেন প্রধানমন্ত্রীপুত্র জয়। প্রত্যক্ষ রাজনীতিতে অংশ না নিলেও সরকারের গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গ্রহণে জয়ের ভূমিকা ধীরে ধীরে বেড়ে চলেছে। বিজ্ঞান প্রযুক্তির আলোকে দেশকে এগিয়ে নেওয়ার ক্ষেত্রে নানা ইস্যুতে তিনি কথা বলেছেন। নেতৃত্বে নবীনদের আনা হলে দল গতিশীল হবে।

সোলায়মান শিপন

সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ, ঢাকা।


মন্তব্য