kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


তদন্তের নামে ভাঁওতাবাজি

৮ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



ওরা বারবার টিভির নিউজ, পত্রিকার হেডলাইন আর টক শোর শিরোনাম হচ্ছে। তোলপাড় হচ্ছে মিডিয়ায়।

কিন্তু ফলাফল জিরো। তনু হত্যার উপযুক্ত বিচার হলে রিশা আর নারগিস নতুন শিরোনাম হতো না। তনু হত্যার আসামিকে নাকি ধরতেই পারেনি আইনের লোকেরা। বারবার তদন্তের নামে ভাঁওতাবাজি হতে দেখেছে ১৬ কোটি মানুষ। বর্তমানে দেশের প্রধানমন্ত্রী, বিরোধী নেত্রীসহ তিন দলের হেড লিডার নারী, সংসদের স্পিকার নারী। তার পরও এখন নারী কন্যাসন্তান মানেই চাপাতি, কোপ, এসিড আর বিবস্ত্র লাশ। নারী নিজেকে নিরাপদ রাখতে যে বোরকা ব্যবহার করছে, তাও আজ রক্তাক্ত করে দিচ্ছে আমাদের দুর্বল আইন। পাঁচটি বড় ঘটনার বিচার দ্রুতবিচার ট্রাইব্যুনালে নিয়ে এমন শাস্তি দেওয়া হোক যেন পুরো বাংলাদেশ কেঁপে ওঠে। শাস্তি দেখে যেন তারা বুঝতে পারে জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলায় আইন আছে। একমাত্র আইনই পারে মা, বোন, কন্যাসন্তানের নিরাপত্তা দিতে। যৌথ পরিবারগুলো যেমন ভেঙে একক হয়ে গেছে। তেমনি যৌথ প্রচেষ্টা, যৌথ উদ্যোগ, যৌথ ভাবনাগুলো এখন ব্যক্তিকেন্দ্রিক, একা হয়ে গেছে। যার ফলে সন্তান কী করে, কী ভাবে, তা জানে না মা-বাবা।

রহিমা আক্তার মৌ

চাটখিল, নোয়াখালী।


মন্তব্য