kalerkantho

রবিবার । ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ । ৭ ফাল্গুন ১৪২৩। ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮।


সব সমস্যার মূলে পাকিস্তান

১ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



বন্ধুত্ব, সুসম্পর্ক, সহযোগিতা ইত্যাদি বিষয় তখনই মজবুত হয় যখন আস্থা ও বিশ্বাস অটুট থাকে। দারিদ্র্য বিমোচন, জনগণের জীবনমান উন্নয়ন নিয়ে এ অঞ্চলের সাতটি দেশের সমন্বয়ে ১৯৮৫ সালে সার্ক গঠিত হয়। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়গুলোতে সার্কভুক্ত দেশগুলোত সন্ত্রাসবাদ মাথাচাড়া দিয়েছে। বাংলাদেশেও জঙ্গি তত্পরতা লক্ষ করা গেছে। সরকার যখন জঙ্গি দমনে শক্ত পদক্ষেপ নিয়েছে তখন ভারত সাহায্যের হাত বাড়িয়েছিল; যদিও ভারতের সাহায্য না নিয়েই আমরা জঙ্গিবাদ দমনে যথেষ্ট সমর্থ হয়েছি। পাকিস্তান জঙ্গিবাদের উর্বর ভূমি। দেশটিতে সন্ত্রাসবাদ ছেয়ে গেছে। অথচ সার্কভুক্ত কোনো দেশের সাহায্য-সহযোগিতা তারা নিচ্ছে না। আফগানিস্তান আগে থেকেই জঙ্গি হামলার জন্য পাকিস্তানকে দায়ী করে আসছে। আল-কায়েদা, আইএস, তালেবান সবার আশ্রয় ও প্রশ্রয়দাতা পাকিস্তান। কিছুদিন আগেও তারা আফগানিস্তানের সীমান্তে সামরিক মহড়া চালিয়েছে। ১৯৭১ সালে যুদ্ধে পাকিস্তানের কারণে আমরা অপূরণীয় ক্ষতির সম্মুখীন হই। আন্তর্জাতিক ট্রাইব্যুনালের মাধ্যমে সরকার যুদ্ধাপরাধীদের বিচার কার্যকর করছে। কিন্তু এই রায় নিয়ে পাকিস্তান সংসদে নিন্দা প্রস্তাব পাস করেছে। এটা আমাদের অভ্যন্তরীণ ব্যাপারে তাদের চরম হস্তক্ষেপ। সরকারপ্রধান হিসেবে শেখ হাসিনা আগেই সার্কে না যাওয়ার কথা উল্লেখ করেছেন। পরে ভুটান আমাদের অনুসরণ করেছে। সাম্প্রতিক কাশ্মীরে হামলায় পাকিস্তানকে দায়ী করা হচ্ছে। আমরা চাই আঞ্চলিক সহযোহিতার ক্ষেত্র হিসেবে নতুনভাবে সার্কের মধ্যে শান্তি প্রতিষ্ঠিত হোক, সেটা কারো স্বার্থকে আঘাত না দিয়ে।

মিজানুর রহমান

বানাসুয়া, কুমিল্লা।


মন্তব্য