kalerkantho

বুধবার । ৭ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


দুর্নীতির আশঙ্কা করছি

১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



যথার্থ বাস্তবায়নের ওপর নির্ভর করবে গৃহীত কার্যক্রমটির উদ্দেশ্যর সফলতা। স্বচ্ছতা বজায় রাখা কতটুকু সম্ভব এ কার্যক্রমে? আমাদের দেশে রিলিফ কিংবা অন্যান্য সরকারি অনুদান বিতরণের সময় হতদরিদ্রদের কাছ থেকে গোপনে উেকাচ কিংবা প্রদত্ত অনুদানের মুষ্টিমেয় অংশ হাতিয়ে নিয়ে থাকে সংশ্লিষ্ট দায়িত্বরত মহল।

এ ক্ষেত্রেও যে এ রকম হবে না এর কোনো নিশ্চয়তা নেই। তৃণমূল থেকে শুরু করে ওপর মহল পর্যন্ত স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি নিশ্চিত করার মাধ্যমে এ কার্যক্রম সফল করা সম্ভব। যেসব দুস্থের উদ্দেশ্যে এ কার্যক্রম, তাদের হাতে হাতে স্বচ্ছতার সঙ্গে চাল পৌঁছে দেওয়ার বিষয়টি অবশ্যই নিশ্চিত করতে হবে। দারিদ্র্য বিমোচন শুধু দু-একটি পরিকল্পনার মাধ্যমে সম্ভব নয়, প্রয়োজন বহুমুখী ও স্থায়ী পরিকল্পনা।

বর্তমান সরকারের গৃহীত সিদ্ধান্তটি অবশ্যই দারিদ্র্য বিমোচনে ভূমিকা রাখবে বলে আমরা আশাবাদী। তবে অবশ্যই হতদরিদ্রদের হয়রানি নয়, স্বচ্ছতা ও নৈতিকতার সঙ্গে কর্মসূচি বাস্তবায়ন সরকারকে নিশ্চিত করতে হবে। তাহলেই দুস্থদের মাঝে ১০ টাকা কেজি চাল বিতরণ দারিদ্র্য বিমোচনে কিছুটা হলেও ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে।

মাজহারুল ইসলাম লালন

নকলা, শেরপুর।


মন্তব্য