আমরা দুরন্ত ঘূর্ণি ভারতকে দেখাতেই-332283 | মতামত | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

শুক্রবার । ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১৫ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৭ জিলহজ ১৪৩৭


আমরা দুরন্ত ঘূর্ণি ভারতকে দেখাতেই হবে

৫ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



রবিবার রবির আলোর মতো জ্বলে উঠবে বাংলাদেশ। সুকান্তর ভাষায় : ‘জ্বলে পুড়ে-মরে ছারখার, তবু মাথা নোয়াবার নয়।’ প্রথমে আমি বাংলাদেশি। বাংলা আমার জীবন। দেশ আমার মাতা। মায়ের কোলে জীবনকে আর হারাতে পারি না। ১৬ কোটি মানুষের প্রাণশক্তিতে উজ্জীবিত দল বিজয় ছিনিয়ে আনবেই। সৌম্যর জ্বলে ওঠা! তামিমের টর্নেডো! সাব্বিরের সিডর! আর সবাই মিলে এক দুরন্ত ঘূর্ণি। তাহলে ভারত কী করে সামনে দাঁড়াবে?

আমাদের প্রত্যাশা থাকবে, আগে ব্যাট করলে রান হবে দেড় শতাধিক। বোলিং করলে আল আমিন, মাশরাফি ও সাকিবদের ঘূর্ণির জাদুতে ভারতকে ১৩০ রানের মধ্যে বেঁধে ফেলতে হবে। এই কৌশল সফল হলে আমাদের জয় সুনিশ্চিত। আমাদের প্রত্যাশা, অধরাকে ধরে, অজয়কে জয় করে বাঙালির হূদয়কে রাঙিয়ে দেবে বিজয়ের আলপনায়। একসঙ্গে বিজয় আনন্দে হেসে উঠবে ১৬ কোটি প্রাণ। আর সবাই মিলে গাইব সেই গান :            ‘যাও যাও যাও, এগিয়ে বাংলার দামাল ছেলেরা।’ তোমাদের কাছ থেকে আমাদের প্রাপ্তি এখন প্রত্যাশার চেয়েও বেশি। ২ মার্চ পাকিস্তানকে হারিয়ে তোমরা একাত্তরের ২৫ মার্চের হামলার মধুর প্রতিশোধ নিয়েছ। তোমাদের আর পিছু ফেরা চলবে না। আমাদের শুভ সূচনা হয়েছিল লঙ্কা বধের মধ্য দিয়ে। যোগ্য দল হিসেবেই আমরা ফাইনালে এসেছি। ফাইনালে ভারতকে হারিয়ে কাপ নিয়েই ঘরে ফিরতে হবে।

সাবিনা সিদ্দিকী শিবা

ফতুল্লা, নারায়ণগঞ্জ।

মন্তব্য