kalerkantho


চাকরিতে প্রবেশের বয়স

১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০



গত দেড় দশকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সেশনজটের চিত্র, রাজনৈতিক অস্থিরতা, কোটা প্রথা, পদ খালি থাকা সত্ত্বেও কম নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ ইত্যাদি কারণে সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়স বাড়ানো যৌক্তিক ও গ্রহণযোগ্য দাবিতে পরিণত হয়েছে। নবম ও দশম জাতীয় সংসদে বহুবার প্রসঙ্গটি উত্থাপন এবং সংসদীয় স্থায়ী কমিটি সুপারিশ করেছে। নির্বাচনী ইশতেহারে ঘরে ঘরে চাকরি দেওয়া এবং বয়স বাড়ানোর প্রতিশ্রুতি থাকলেও বাস্তবায়িত হয়নি। গত সাত বছরে ঢাকাসহ সারা দেশে এ দাবিতে আন্দোলনও হয়েছে। এত আন্দোলন, সুপারিশ, লেখালেখি, টক শো, সংবাদ সম্মেলন হওয়ার পরও সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়স বাড়েনি। নীতিনির্ধারকদের ভাবতে হবে, যারা বয়স বাড়ানোর ধারণার জন্ম দিল, আন্দোলন করল, মার খেল, জেল খাটল, সেশনজটের শিকার হলো—তারা কি এ সুবিধা পাবে? ভারতেও রাজ্যভেদে চাকরিতে প্রবেশের বয়স ৩৫ থেকে ৪০ বছর রয়েছে। সম্ভাবনাময় তরুণদের দেশ গড়ার কাজে লাগাতে এবং শিক্ষিত জনশক্তির উন্নতিকল্পে চাকরিতে প্রবেশের বয়স বাড়াতে সরকারের কার্যকর পদক্ষেপ চাই।

নাজমুল হোসেন, ঢাকা।



মন্তব্য