kalerkantho

নিরাপদ সড়ক চাই

৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনের মাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে সড়ক পরিবহন সেক্টরের দুর্নীতি, অনিয়ম এবং অদক্ষতার ভয়াবহ চিত্র। সারা দেশে প্রায় ২০ লাখ গাড়ি নিবন্ধনহীন, ১৬ লাখ ড্রাইভার লাইসেন্সবিহীন, ১৫ লাখ গাড়ির রোড পারমিট নেই, ফিটনেসবিহীন গাড়ির নেই কোনো পরিসংখ্যান, ট্রাফিক পোস্টগুলো অকেজো, নির্দ্বিধায় সবাই ট্রাফিক আইন লঙ্ঘন করছে, ট্রাফিক পুলিশ জনসমক্ষে ঘুষ নিচ্ছে, পথচারীরা রাস্তার মাঝ দিয়ে পারাপার হচ্ছে, কেউ কেউ ফোনে কথা বলছে কিংবা ইয়ারফোন কানে গুঁজে হাঁটছে, ড্রাইভাররা যেখানে-সেখানে যাত্রী ওঠাচ্ছে কিংবা নামাচ্ছে। অবৈধভাবে রাস্তার পাশে গাড়ি পার্ক করে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করছে, বিআরটিএ টাকার বিনিময়ে লাইসেন্স দিচ্ছে কিংবা ফিটনেসের বৈধতা দিচ্ছে। এসব অনিয়ম বলে দেয় সড়ক পরিবহন সেক্টরের ব্যাপারে আমরা কতটা উদাসীন। সাধারণ জনগণ ট্রাফিক আইন সম্পর্কে সম্পূর্ণ অজ্ঞ। পরিসংখ্যানে দেখা যাচ্ছে, ৭২ শতাংশ দুর্ঘটনার প্রধান কারণ অসচেতন যাত্রী ও পথচারী। তারা ফুট ওভারব্রিজ, আন্ডারপাস এবং জেব্রাক্রসিং থাকা সত্ত্বেও জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রাস্তা পার হয়। তাদের সচেতন করার লক্ষ্যে প্রিন্ট মিডিয়া, ইলেকট্রনিক মিডিয়া এবং বিভিন্ন উন্মুক্ত সভা-সমাবেশের মাধ্যমে জনসচেতনতামূলক প্রগ্রামের আয়োজন করতে হবে। সর্বোপরি সড়ক পরিবহনের প্রত্যেক স্টেকহোল্ডারকে চলমান সমস্যা সমাধানে এগিয়ে আসতে হবে।

মাহবুবুর রহমান সাজিদ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা।

 

 



মন্তব্য