kalerkantho


জনসংখ্যাকে সম্পদে রূপান্তর করতে হবে

৬ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



বাংলাদেশে চাকরি সোনার হরিণ! সোনার হরিণ ধরার জন্য সবাই পাগলের মতো ছোটাছুটি করছে। তার পরও যোগ্যতা অনুযায়ী চাকরি হয় না, বেতন পাওয়া যায় না। যথাযথভাবে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করতে হবে। বিশাল জনগোষ্ঠীকে বেকার রেখে কখনো দেশের সার্বিক উন্নয়ন সম্ভব নয়। কর্মমুখী শিক্ষা বা কারিগরি ও প্রযুক্তিগত শিক্ষাব্যবস্থাই পারে নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টি করতে এবং বেকারত্ব দূরীকরণে কার্যকর ভূমিকা রাখতে। বিদেশে দক্ষ জনশক্তি রপ্তানি বাড়াতে কূটনৈতিক প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখতে হবে। ডিগ্রি অর্জনকে শিক্ষার মূল লক্ষ্য না করে শিক্ষার গুণগত মানের দিকে নজর দিতে হবে। ঢালাওভাবে উচ্চতর ডিগ্রি অর্জনের প্রতিযোগিতা থামাতে হবে। বৈষম্যমূলক শিক্ষানীতি থেকে বের হয়ে আসার রাস্তা বের করতে হবে। প্রকৃত শিক্ষায় শিক্ষিত হলে বেকারত্ব স্বয়ংক্রিয়ভাবে কমে যাবে। উদ্যোক্তা তৈরি করতে প্রয়োজন যথাযথ প্রশিক্ষণ, আর্থিক সহযোগিতা ও উৎসাহ প্রদান। শিক্ষার্থীদের পড়ালেখার পাশাপাশি ফ্রিল্যান্সিং ও পার্টটাইম কাজের সুযোগ তৈরি করে দিতে হবে। বেকারত্ব দূর না হলে সমাজে নানা রকমের সামাজিক অস্থিরতা, মাদকাসক্ত ও নৈতিক অবক্ষয় দেখা দেবে।

অমিত বণিক

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়।



মন্তব্য