kalerkantho

মঙ্গলবার। ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ । ৯ ফাল্গুন ১৪২৩। ২৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮।


স্টেটমেন্ট নিতে টাকা লাগবে কেন?

৬ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



প্রায় ১০ বছর ধরে আমি ডাচ্-বাংলা ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করি। এ ব্যাংকে বছরে দুইবার বিনা পয়সায় রেজিস্টার্ড ডাকযোগে বা কুরিয়ার সার্ভিসে অ্যাকাউন্ট স্টেটমেন্ট পাঠানোর কথা থাকলেও কখনোই তারা তা পাঠায়নি। গত ২ অক্টোবর অ্যাকাউন্ট স্টেটমেন্ট আনতে গেলে তারা ২৩০ টাকা চার্জ দাবি করে। ১০ বছর ধরে হিসাব পরিচালনা করলেও কখনোই ১০ টাকা লাভ পাইনি। ব্যাংকে জমা মিনিমাম ৫০০ টাকা সব সময়ই ছিল। ওই ৫০০ টাকার মুনাফা কোথায়? বাংলাদেশ ব্যাংক কি কখনো তা অডিট করেছে? এ ছাড়া ডাচ্-বাংলা ব্যাংক সিএসআরের নামে মেধাবী শিক্ষার্থীদের প্রতিবছর হাজার হাজার কোটি টাকা স্কলারশিপ দেয়। কিন্তু সেই টাকা কোথা থেকে আসে? তারা কি এভাবে গ্রাহকের টাকা চুরি করে কেটে নিয়ে প্রকাশ্যে পরের ধনে মাদবরি করে, তাহলেও বাংলাদেশ ব্যাংক কেন এ ব্যাপারে কোনো ব্যবস্থা নেয় না? ব্যাংকের সব রকমের ব্যয় শোধ করার পর অবশিষ্ট যা আয় থাকবে তা থেকে সিএসআর হবে। এক পাতার একটা ব্যাংক স্টেটমেন্টের দাম ১০ টাকা হতে পারে, ২৩০ টাকা কিছুতেই হতে পারে না। আমার অ্যাকাউন্টের স্টেটমেন্ট আমি নেব; কিন্তু সে জন্য টাকা লাগবে কেন? ডাচ্-বাংলা ব্যাংকসহ সব ব্যাংকের সার্ভিস চার্জ ব্যাংকের আয় থেকে মেটানো হোক। সাধারণ সঞ্চয়ী হিসাবধারীদের সব সার্ভিস চার্জের যন্ত্রণা থেকে অবিলম্বে মুক্তি চাই।

দেওয়ান ওমর আলী চৌধুরী, খিলগাঁও, ঢাকা।


মন্তব্য