kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


মানসিক স্বাস্থ্য খাতে নজর দিন

২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো আমাদের দেশেও মানসিক স্বাস্থ্য একটি গুরুত্বপূর্ণ সমস্যা। দেশের প্রাপ্তবয়স্ক জনগোষ্ঠীর ১৬.১ শতাংশ কোনো না কোনো ধরনের মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যা বা মানসিক রোগে আক্রান্ত।

শিশু মানসিক স্বাস্থ্যের ওপর ঢাকা বিভাগে পরিচালিত এক জরিপে দেখা যায়, ১৮.৪ শতাংশ শিশু কোনো না কোনো ধরনের মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যায় ভুগছে। এ ছাড়া শিশুদের বুদ্ধিপ্রতিবন্ধিতা, মৃগীরোগ ও মাদকাসক্তি রয়েছে। মানসিক স্বাস্থ্যসেবায় কর্মরত জনবল প্রয়োজনের তুলনায় খুবই কম।

বর্তমানে মানসিক স্বাস্থ্যসেবা কর্মসূচি বাস্তবায়নের সবচেয়ে বড় অন্তরায় মানসিক রোগ ও চিকিৎসার প্রতি জনগণের ভ্রান্ত বিশ্বাস, কুসংস্কার ও নেতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি। এরপর রয়েছে পর্যাপ্ত মানসিক রোগ বিশেষজ্ঞ, মনোচিকিৎসক ও মনোবিদসহ বিভিন্ন জনবলের অভাব। আছে অপর্যাপ্ত বাজেট বরাদ্দ, প্রয়োজনীয় রেফারেল-ব্যবস্থার ঘাটতি, মানসিক রোগীর জন্য দীর্ঘমেয়াদি পুনর্বাসনব্যবস্থার অভাব ও গবেষণার জন্য প্রয়োজনীয় ফান্ডের স্বল্পতা।

জনগণের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে হলে মানসিক স্বাস্থ্যসেবা ও মানসিক রোগ চিকিৎসা অবহেলা করে কখনোই অর্জন সম্ভব নয়। এ জন্য সর্বাগ্রে প্রয়োজন নীতিনির্ধারণী সিদ্ধান্ত গ্রহণ ও দ্রুত বাস্তবায়ন। বর্তমান বাস্তবতায় মানসিক স্বাস্থ্যসেবাকে প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবায় অন্তর্ভুক্ত করে বাস্তবায়নের কোনো বিকল্প নেই। এ জন্য প্রয়োজন সরকারের আন্তরিক সহযোগিতা। আমাদের জাতীয় অগ্রগতি ও উন্নতির লক্ষ্য অর্জন ও সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে মানসিক স্বাস্থ্যসেবা কর্মসূচির উন্নয়নের পদক্ষেপ গ্রহণের এখনই সময়।

 

অমিত বণিক

কটিয়াদী, কিশোরগঞ্জ।


মন্তব্য