প্রসঙ্গ ৩৪তম বিসিএস-333082 | চিঠিপত্র | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

শনিবার । ১ অক্টোবর ২০১৬। ১৬ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৮ জিলহজ ১৪৩৭


প্রসঙ্গ ৩৪তম বিসিএস

৭ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



আমরা ৩৪তম বিসিএসে কারিগরি ও পেশাগত ক্যাডারে প্রিলিমিনারি, লিখিত ও ভাইভা পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছি; কিন্তু পিএসসি কারিগরি ও পেশাগত (বিশেষ করে শিক্ষা ও স্বাস্থ্য) ক্যাডারে ৬৭২টি খালি পদ থাকা সত্ত্বেও আমাদের সুপারিশ না করে নন-ক্যাডারে তালিকাভুক্ত করে। বিপিএসসি গণমাধ্যমকে জানিয়েছে, খালি পদগুলো মুক্তিযোদ্ধা কোটার জন্য সংরক্ষিত। আমরা সবাই জানি, দেশের জেলা ও উপজেলা শহরের সরকারি কলেজগুলোতে শিক্ষক সংকট প্রকট। শিক্ষক সংকটের কারণে অনেক স্কুলে শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। কারিগরি বা পেশাগত ক্যাডারের ৬৭২টি খালি পদ পূরণের নিমিত্ত আমরা ২০১৫ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে স্মারকলিপি দিয়েছি। এদিকে গত ১১ জানুয়ারি মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ ৩৪ বিসিএসের কোটায় সংরক্ষিত কারিগরি ও পেশাগত ৬৭২টি পদ মেধা থেকে পূরণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কিন্তু গত ২৬ জানুয়ারি জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়, ৩৪তম বিসিএসের ৬৭২টি শূন্যপদ ৩৫তম বিসিএস থেকে পূরণ করা হবে। এই সিদ্ধান্তের কারণে আমরা ৩৪তম বিসিএসের প্রার্থীরা সুবিচার পাচ্ছি না। চরম বৈষম্যের শিকার হচ্ছি। এর ফলে আমরা ৩৪তম বিসিএসের কারিগরি ও পেশাগত ক্যাডারে মেধায় উত্তীর্ণ প্রার্থীরা বঞ্চিত হচ্ছি। আমরা প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিনীত অনুরোধ জানাই, ৩৪তম বিসিএসের কারিগরি ও পেশাগত খালি পদগুলো ৩৪তম বিসিএসের মেধাক্রমানুসারে পূরণ করলে আমাদের ৬৭২টি পরিবার কৃতার্থ হবে। আপনার সদয় সিদ্ধান্তের জন্য আমরা অপেক্ষা করব।

জাহিদুল ইসলাম জনি

রেজি. ০১৬৪১৯

৩৪তম বিসিএস উত্তীর্ণ (বঞ্চিত ক্যাডার)

মন্তব্য