kalerkantho


প্রাইভেট কোচিং বন্ধ করুন

৩ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



স্কুলের শ্রেণিকক্ষ থেকেই শিক্ষার্থীরা নানা বিষয়ে জানতে পারে। প্রতিদিন সাত-আটজন শিক্ষকের কাছে শিক্ষার্থীদের জ্ঞানার্জনের সুযোগ থাকে।

প্রতিটি বিদ্যালয়েই অল্পসংখ্যক হলেও আদর্শবান শিক্ষক রয়েছেন। তাঁরা প্রাইভেট বা কোচিং ব্যবসার সঙ্গেও জড়িত নন। কিন্তু বেশির ভাগ শিক্ষকই শিক্ষকতার মহান পেশাকে কলঙ্কিত করছেন কোচিং ব্যবসার মাধ্যমে। তাঁরা নিয়োগ পেয়েছেন নানা বিতর্কিত উপায়ে। তাই তাঁদের কাছে শিক্ষকতা একটি ব্যবসা। তাঁদের উদ্দেশ্য হলো, দ্রুত বিপুল অর্থের মালিক হওয়া। এভাবেই দেশের কিছু শিক্ষকের কারণে শিক্ষাব্যবস্থা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। ছেলেমেয়েরা একের পর এক পরীক্ষায় পাস করছে; কিন্তু তাদের মধ্যে মানবিক ও সামাজিক মূল্যবোধ ও দেশপ্রেমের অভাব দেখা যায়। অনেক অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তা, কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রী প্রাইভেট পড়িয়ে বাড়তি কিছু আয় করতে পারেন। এর আগে সরকারি বা এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের প্রাইভেট পড়ানো বন্ধ করতে হবে। যেকোনো মূল্যে স্কুল-কলেজের শ্রেণিকক্ষে পাঠদানের পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে হবে। অন্যথায় অদূর ভবিষ্যতে আমাদের দেশ ও জাতি ভয়াবহ বিপদের সম্মুখীন হতে পারে। আমরা আশা করি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রী প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবেন।

বিপ্লব, ফরিদপুর।


মন্তব্য