kalerkantho


বিদায়েও তিন বন্ধুর একই পোশাক

সড়ক দুর্ঘটনায় চার জেলায় ১১ জন নিহত

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০



বিদায়েও তিন বন্ধুর একই পোশাক

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে গতকাল দুর্ঘটনায় নিহত কলেজছাত্র রাজার স্বজনদের আহাজারি। পাশে নিহত তিন বন্ধু। ছবি : কালের কণ্ঠ

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার শেষ প্রান্তের একটি গ্রাম দক্ষিণ মৌচাক। ওই গ্রামেই বেড়ে ওঠেন তিন তরুণ—সাকিব, রাজা ও জনি। একসঙ্গেই চলাফেরা তাঁদের। বন্ধুত্ব এতটাই গভীর যে প্রায় সময় তাঁরা পোশাকও পরেন একই রকম। গতকাল রবিবার সড়ক দুর্ঘটনা তাঁদের বিদায়ও দিয়েছে একসঙ্গে, একই পোশাকে।

গতকাল গাজীপুর মহানগরীর ইটাহাটা এলাকায় যাত্রীবাহী বাসের চাপায় মৃত্যু হয় এ তিন বন্ধুর। একই দিন সড়ক দুর্ঘটনায় খুলনায় নিহত হয়েছে পাঁচজন। নরসিংদীতে প্রাণ গেছে দুই মোটরসাইকেল আরোহীর। মুন্সীগঞ্জে মৃত্যু হয়েছে এক শ্রমিকের। কালের কণ্ঠ’র প্রতিনিধিদের খবরে বিস্তারিত—

গাজীপুর ও কালিয়াকৈর প্রতিনিধি জানান, সাকিব, রাজা ও জনি গতকাল মোটরসাইকেলে করে গাজীপুরের চান্দনা চৌরাস্তায় যাচ্ছিলেন মোটরসাইকেল মেরামত করাতে। ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের ইটাহাটা এলাকায় বিপরীত দিক থেকে আসা ‘পলাশ পরিবহনের’ একটি বাস তাঁদের চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তিন বন্ধুর।

রাশেদুল ইসলাম রাজা (১৮) দক্ষিণ মৌচাক গ্রামে পরিবারের সঙ্গে একটি বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। তিনি টাঙ্গাইলের নাগরপুর উপজেলার রেহামের কুটিয়া এলাকার নুর হোসেনের ছেলে। রাজা অধ্যাপক শাহজাহান আলী কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী ছিলেন। জাকিরুল ইসলাম জনির (২০) পরিবারও ওই গ্রামে ভাড়া থাকে। তিনি জামালপুরের ইসলামপুর থানার পচাবহলা এলাকার জয়নাল আবেদীনের ছেলে। গাজীপুরের ভাওয়াল বদরে আলম সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে স্নাতক প্রথম বর্ষের ছাত্র ছিলেন তিনি। মাহফুজুর রহমান সাকিব (১৮) পড়তেন কালিয়াকৈরের ভাষাশহীদ আব্দুল জব্বার আনসার-ভিডিপি উচ্চ বিদ্যালয় অ্যান্ড কলেজে। রাজার মতো তিনিও এইচএসসি পরীক্ষার্থী ছিলেন। তাঁর বাবা মৃত মোজাহার হোসেন।

এ তিন তরুণকে অনেকেই ‘তিন মানিক’ বলে ডাকত। গতকাল দুপুরে জনিদের বাড়িতে গিয়ে দেখা যায়, মা জহুরা বেগম ছটফট করছেন। তিনি বিশ্বাস করেন না, ছেলে মারা গেছে। তিনি বিলাপ করে বলছিলেন, ‘তোমরা কি জনিকে দেখেছ। কী হয়েছে আমার ছেলের। বাড়িতে এত মানুষ কেন?’

জনিদের পরের বাড়ি রাজাদের। সেখানেও একই দৃশ্য। লোকজনের ভিড়। বাড়ির ভেতরে গিয়ে দেখা যায়, ছেলের মৃত্যুর খবরে নিথর হয়ে আছেন বাবা নুর হোসেন। পাশে রাজার মা সালেহা ও বোনদের চলছে বুক চাপড়ানো আহাজারি। নিথর ভাইয়ের উদ্দেশে বোন শান্তার ঘুরেফিরে একটাই প্রশ্ন, ‘আমাদের দিদি বলে কে ডাকবে?’

রাজাদের বাড়ির এক ঘর পরেই সাকিবদের বাড়ি। দুই ভাই-বোনের মধ্যে সাকিব ছোট। সাকিবদের বাড়িতেও কান্না ছাড়া আর কী হতে পারে!

বাসন থানার ওসি মুক্তার হোসেন জানান, বাসের চালক জামাল পাশাকে (৩৫) আটক করা হয়েছে। জব্দ করা হয়েছে বাসটিও। জামাল পাশা খুলনার রূপসা থানার পূর্ব বানিয়াখামার এলাকার বাসিন্দা।

খুলনা অফিস জানায়, সেখানে মাইক্রোবাস ও ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে এক পথচারীসহ পাঁচজন নিহত হয়েছে। গতকাল রাত পৌনে ১১টার দিকে রূপসা সেতু বাইপাস সড়কে লবণচরা থানার অদূরে এই দুর্ঘটনা ঘটে। পুলিশ জানায়, মাইক্রোবাসটি রূপসা সেতুর দিকে যাচ্ছিল। লবণচরা থানার অদূরে এক পথচারীকে রক্ষা করতে গিয়ে দ্রুতগতির মাইক্রোবাসটি ডানে মোড় নেয়। ওই সময় বিপরীত দিক থেকে আসা সিমেন্টবোঝাই একটি ট্রাক পথচারীসহ মাইক্রোবাসটিকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই পথচারীসহ মাইক্রোবাসের চার আরোহীর মৃত্যু হয়। নিহতদের পরিচয় তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।

নরসিংদী প্রতিনিধি জানান, সেখানে কাভার্ড ভ্যানের চাপায় মোটরসাইকেলের দুই আরোহী নিহত হয়েছে। গতকাল বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে সদর উপজেলার ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের মেহেরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। কাভার্ড ভ্যান চালক ইয়াছিন মিয়াকে আটক করেছে পুলিশ। নিহতরা হলেন মাধবদী পৌরসভার টাটাপাড়া এলাকার রক্সি (২৭) ও পৌলানপুর এলাকার রাব্বী মিয়া (২১)।

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, সিরাজদিখানে সড়ক দুর্ঘটনায় মো. মোস্তফা (৩৫) নামের এক শ্রমিক নিহত হয়েছেন। তাঁর বাড়ি ভোলায়। গত শনিবার রাত ৮টার দিকে সিরাজদিখান-তালতলা সড়কের বড় পাউলদিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। সিরাজদিখান থানার এসআই নিরঞ্জন রায় জানান, একটি ইট ভাঙার মেশিন নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে গেলে সেটির নিচে চাপা পড়ে মোস্তফার মৃত্যু হয়।



মন্তব্য