kalerkantho


নির্বাচনের জন্য আমরা প্রস্তুত

আব্দুল হাই
সভাপতি, জেলা বিএনপি

৯ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



নির্বাচনের জন্য আমরা প্রস্তুত

কালের কণ্ঠ : একাদশ সংসদ নির্বাচন নিয়ে আপনাদের দলীয় প্রস্তুতি কেমন?

 

আব্দুল হাই : নির্বাচনের জন্য আমাদের দলের সব সময়ই প্রস্তুতি আছে। তবে বর্তমানে কেন্দ্রীয় যে দাবিদাওয়া রয়েছে তা বাস্তবায়নের পরিপ্রেক্ষিতে আমরা ব্যবস্থা নেব। নির্বাচনের জন্য আমরা প্রস্তুত। কিন্তু যে নির্বাচন অর্থবহ হবে না, মানুষের মনের কথাগুলো বাস্তবায়নের জন্য এখন আমরা আন্দোলনকে সামনে রাখছি। সেই সঙ্গে নির্বাচনের জন্যও প্রস্তুত আছি।

কালের কণ্ঠ : মুন্সীগঞ্জে জেলা থেকে তৃণমূল পর্যায়ে বিএনপির সাংগঠনিক অবস্থান কেমন?

আব্দুল হাই : সাংগঠনিক অবস্থা বেশ ভালো। বিএনপি একটি বড় দল। জেলার তিনটি আসনেই অনেকে মনোনয়ন চাইতে পারে। তবে দল যাকে মনোনয়ন দেবে, আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে তার জন্য কাজ করব।

কালের কণ্ঠ : এলাকায় বিএনপি নেতাকর্মীদের ধরপাকড় করা হচ্ছে কি?

আব্দুল হাই : পাইকারি হারে ধরপাকড় করা হচ্ছে। প্রতিটি কেন্দ্রের আশপাশে যারা বিএনপির বড় নেতা তাদের বাড়িতে যাচ্ছে পুলিশ। নেতাকর্মীদের নাম লিস্ট করছে। আমাদের পৌর এলাকার আটটি ইউনিয়নের নেতাকর্মীদের ধরপাকড় করে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। এ আতঙ্কে এখন ভীত নেতাকর্মীরা।

কালের কণ্ঠ : নির্বাচনের আগে যদি খালেদা জিয়ার মুক্তি না হয় তবে নির্বাচন করবেন কী?

আব্দুল হাই : এখন পর্যন্ত আমাদের সিদ্ধান্ত খালেদা জিয়াকে ছাড়া আমরা নির্বাচনে যাব না। আমাদের কেন্দ্রীয় পর্যায়ের নেতা ও আইনজ্ঞদের মাথায় এটা রয়েছে। সংলাপের পর আমরা সার্বিক অবস্থা বুঝতে পারব।

কালের কণ্ঠ : আওয়ামী লীগ নির্বাচনী প্রচারণায় মাঠে থাকলেও বিএনপি নেই কেন?

আব্দুল হাই : নির্বাচনের শিডিউল ঘোষণার আগে এটা আরপিওর পরিপন্থী। তারা রঙিন পোস্টার লাগাচ্ছে, প্রচার-প্রচারণা করছে। পুলিশ-প্রশাসন কিছু বলে না। আমরা রাস্তায় মিটিং-মিছিল করতে পারি না। তবে বিএনপির শুধু ঘোষণাই যথেষ্ট। ঘরে ঘরে সবাই তৈরি হয়ে আছে। মনের কথাগুলো যার যেটা আছে সেটা মনেই আছে। আওয়ামী লীগ নৌকায় ভোট চেয়েও পাবে না। আমাদের মাত্র ৪৮ ঘণ্টা সময় লাগবে এসব প্রচারকাজ করতে।



মন্তব্য