kalerkantho


সবিশেষ

বায়ুদূষণে স্মৃতিভ্রংশের ঝুঁকি!

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



বায়ুদূষণে স্মৃতিভ্রংশের ঝুঁকি!

শহুরে বায়ুদূষণ বিশেষত গাড়ির ধোঁয়ায় ডিমেনশিয়া বা স্মৃতিভ্রংশ রোগের ঝুঁকি বাড়ে। এত দিন মদপান, ধূমপানের মতো বিষয়গুলোকে স্মৃতিভ্রংশের জন্য দায়ী মনে করা হতো। এবার এর সঙ্গে যোগ হলো বায়ুদূষণ। এসংক্রান্ত গবেষণা নিবন্ধ চিকিৎসা সাময়িকী ‘বিএমজে ওপেন’-এ গতকাল বুধবার প্রকাশিত হয়েছে।

লন্ডন বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংখ্যা স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের আইয়ান ক্যারি গবেষণায় নেতৃত্ব দিয়েছেন। এতে গ্রেটার লন্ডনের এক লাখ ৩১ হাজার বাসিন্দার স্বাস্থ্য তথ্য ব্যবহার করা হয়েছে, যাদের বয়স ৫০ থেকে ৭৯ বছর। ২০০৪ সালের তাদের কেউই স্মৃতিভ্রংশ রোগে আক্রান্ত ছিল না। পরবর্তী সাত বছরের স্বাস্থ্য তথ্যে ওই ব্যক্তিদের মধ্যে দুই হাজার ২০০ জনের ডিমেনশিয়া ধরা পড়ে। বিজ্ঞানীরা এসব রোগীর আবাসিক ঠিকানা সন্ধান করে ধারণা করছেন, নাইট্রোজেন ডাই-অক্সাইড এবং ক্ষতিকর উপাদান পিএম ২.৫-এর কারণে তারা স্মৃতিভ্রংশে আক্রান্ত হয়েছে।

বিশ্বব্যাপী পঁয়ষট্টির বেশি বয়সী মানুষের ৭ শতাংশ আলঝেইমার কিংবা স্মৃতিভ্রংশের অন্যান্য রোগে আক্রান্ত। আর পঁচাশির বেশি বয়সীদের ক্ষেত্রে এই হার ৪০ শতাংশ। ২০৫০ সাল নাগাদ এই রোগে আক্রান্তের হার তিন গুণ বেড়ে যেতে পারে, যা স্বাস্থ্যব্যবস্থার জন্য নতুন চ্যালেঞ্জ বলে মনে করছেন বিজ্ঞানীরা।

গবেষকরা বলছেন, আগামী দশকে সব ধরনের স্মৃতিভ্রংশ রোগের প্রাথমিক প্রতিরোধ নিয়েই উদ্বেগ তৈরি হয়েছে। গাড়ির কালো ধোঁয়া বা নাইট্রোজেন ডাই-অক্সাইডকে হৃদরোগ, স্ট্রোক, শ্বাসকষ্টজনিত রোগ বিশেষ করে অ্যাজমার জন্য দায়ী বলে মনে করা হয়। তবে এটি আলঝেইমার বা স্মৃতিভ্রংশের অন্যান্য রোগের জন্য দায়ী হলেও ওই সব রোগে সমান দায়ী কি না সেটি এখনো পরিষ্কার নয়। সূত্র : এএফপি।



মন্তব্য