kalerkantho


কুমিল্লায় আদালতে যাওয়ার পথে বাদীকে কুপিয়ে হত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুমিল্লা   

৯ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



কুমিল্লায় আদালতে যাওয়ার পথে বাদীকে কুপিয়ে হত্যা

প্রতীকী ছবি

কুমিল্লায় আদালতে যাওয়ার সময় একটি মামলার বাদীকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। হত্যাকারীরা মামলার আসামি বলে প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলার শিবপুর মধ্যমপাড়ায় এ হত্যাকাণ্ড হয়। নিহত ব্যক্তির নাম মিজানুর রহমান (৩৫)। তিনি মধ্যমপাড়ার সৈয়দুজ্জামানের ছেলে। তিনি জমি ব্যবসায়ী ছিলেন।

স্থানীয় লোকজন জানায়, মিজানুর রহমান সকাল সাড়ে ৮টার দিকে আদালতে রওনা দেন। মধ্যমপাড়া কবরস্থানের সামনে আসার পর মামলার আসামিরা তাঁকে কুপিয়ে জখম করে। মিজানুরকে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

মিজানুর রহমানের বুকের মাঝখানে ও দুই পাশে চারটি ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলে জানান কুমিল্লা কোতোয়ালি থানার পুলিশের উপপরিদর্শক মো. নাজমুল হাসান।

মিজানের মামাতো ভাই আবুল মিয়া ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী। তিনি জানান, মিজানের সঙ্গে তাঁর চাচা ও তিনি ছিলেন। মামলার কাগজপত্র নিয়ে তাঁরা আদালতের উদ্দেশে মোটরসাইকেলে করে রওনা দেন। মোটরসাইকেলটি চালাচ্ছিলেন মিজানুর রহমান। তাঁরা মধ্যমপাড়া কবরস্থানের সামনে আসা মাত্র কামাল হোসেন ওরফে আলমাস (৪৫), মৈয়দুর আলীসহ (৫০) আরো পাঁচ-ছয় আসামি এসে মিজানুর রহমানকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি আঘাত করতে শুরু করে।

আবুল মিয়া জানান, বাধা দিতে গেলে তাঁকেও মেরে আহত করে হামলাকারীরা। তারা মামলার কাগজপত্রও ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। হামলাকারীদের বিরুদ্ধে চারটি মামলা রয়েছে।

কুমিল্লা জেলা জজ আদালতের আইনজীবী নরেন্দু বিকাশ সর্বাধিকারী ওরফে দোলন জানান, নিহত মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে তাঁর করা মামলার আসামিরাও একটি সাজানো প্রতারণা মামলা করেছিল। এ মামলায় জামিনে বের হয়ে দ্বিতীয় হাজিরার তারিখ ছিল আজ (বৃহস্পতিবার)।

এদিকে মিজান হত্যার ঘটনায় লালমাই এলাকায় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে এলাকাবাসী। এ সময় তারা একটি মোটরসাইকেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।



মন্তব্য