kalerkantho


বিবৃতিতে ফখরুল

এই হামলা কুশাসনের জঘন্যতম অধ্যায়

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৫ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



এই হামলা কুশাসনের জঘন্যতম অধ্যায়

ফাইল ছবি

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, প্রকৃত অপরাধীদের বিচারহীনতার কারণে জনসমাজে সন্ত্রাসীরা আরো উৎসাহিত হয়ে রক্তখেলায় মেতে উঠেছে। ড. জাফর ইকবালের মতো একজন স্বনামধন্য লেখককে ধারালো অস্ত্র দিয়ে গুরুতর আহত করা এক সুদূরপ্রসারী চক্রান্তের অংশ। তাঁর ওপর আক্রমণ বর্তমান কুশাসনের এক জঘন্যতম অধ্যায় হয়ে থাকবে। তাঁর ওপর হামলাকারীরা সমাজের শত্রু। গতকাল রবিবার দুপুরে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে ফখরুল এ কথা বলেন।

এদিকে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের মন্তব্য— জাফর ইকবালের ওপর হামলার ‘চক্রান্ত তাদের, যাদের বিএনপি পৃষ্ঠপোষকতা দিচ্ছে’ প্রসঙ্গে প্রতিক্রিয়ায় গত রাতে মির্জা ফখরুল সাংবাদিকদের বলেন, তাঁর বক্তব্য ‘প্রকৃত অপরাধীদের আড়াল করার অপচেষ্টা।’ বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘এ রকম একটি সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা নিয়ে ক্ষমতাসীন দলের সাধারণ সম্পাদক সাহেব যে বক্তব্য দিয়েছেন তা সম্পূর্ণভাবে দায়িত্বজ্ঞানহীন। যখন ঘটনাটি নিয়ে তদন্ত হচ্ছে ঠিক সেই সময়ে বিএনপির দিকে আঙুল রেখে তাঁর দায়িত্বজ্ঞানহীন বক্তব্যে এটাই প্রমাণ করে, তাঁরা ঘটনাকে ভিন্ন দিকে নিয়ে যেতে চাচ্ছে। এসব কারণেই প্রকৃত অপরাধীরা আড়ালে চলে যায়।’

দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে ফখরুল বলেন, ‘সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠের একজন শিক্ষককে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেতরে প্রকাশ্য দিবালোকে হত্যাচেষ্টার ঘটনায় দেশে যে অনিশ্চয়তার অন্ধকার বিরাজ করছে তা সংশয়াতীতভাবে সত্য।’ তিনি জাফর ইকবালের দ্রত সুস্থতা কামনা করেন।

লিসার সঙ্গে ফখরুলের বৈঠক

রোহিঙ্গাদের পরিস্থিতি দেখতে আসা যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সিনিয়র উপদেষ্টা লিসা কার্টিসের সঙ্গে বৈঠক করেছেন বিএনপি মহাসচিব। গতকাল বিকেল পৌনে ৩টা থেকে প্রায় ঘণ্টাব্যাপী এই বৈঠক হয় গুলশানে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাটের বাসভবনে। বৈঠকে মির্জা ফখরুলের সঙ্গে স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী ও ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আউয়াল মিন্টু উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকের পর বিএনপির প্রতিনিধিরা সাংবাদিকদের সঙ্গে কোনো কথা বলেননি।


মন্তব্য