kalerkantho


ভালোবাসার টান

প্রাসাদ ছাড়ছেন জাপানের রাজকুমারী

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৯ মে, ২০১৭ ০০:০০



প্রাসাদ ছাড়ছেন জাপানের রাজকুমারী

যুদ্ধ ও প্রেমে কোনো কিছু পরিকল্পনামতো হয় না। ছক কষে রাখা জীবন পাল্টে যায়। রাজপ্রাসাদের ঐশ্বর্য-সম্পদ ছেড়ে ভালোবাসার মানুষটির হাত ধরে এক বেডরুমের ফ্ল্যাটে গিয়ে ওঠা যায়। এমন একটি সিদ্ধান্তই নিয়েছেন জাপানের রাজকুমারী। সাধারণ মধ্যবিত্ত পরিবারের এক ছেলেকে ভালোবেসে প্রাসাদ-উপাধি সবই ছাড়ছেন তিনি।

প্রিন্সেস মাকো সম্রাট আকিহিতোর বড় নাতনি। পঁচিশের এই রাজকুমারী বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করতে গিয়ে প্রেমে পড়েন কেই কোমুরোর। একসময়ের এই সহপাঠীকেই বিয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। শিগগির হবে আংটি বদল। আর বিয়ে আগামী বছর। জাপানি রাজতন্ত্রের নিয়মানুসারে রাজপরিবারের বাইরে সাধারণ মানুষকে বিয়ে করলে তাঁর রাজ উপাধি ও উত্তরাধিকার কেড়ে নেওয়া হয়।

প্রিন্সেস মাকো সব ছেড়ে দিয়েই বর্তমানে আইন সংস্থায় কর্মরত কোমুরোর হাত ধরার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এর আগে ২০০৫ সালে তাঁর ফুফু অর্থাৎ সম্রাট আকিহিতোর মেয়ে প্রিন্সেস সায়াকোও সাধারণ মানুষকে বিয়ে করে রাজপ্রাসাদ ছাড়েন। প্রাসাদের আয়েশ ছেড়ে গিয়ে ওঠেন এক বেডরুমের ফ্ল্যাটে। গাড়ি চালানো থেকে শুরু করে বাজার-হাট সবই করতে হয় তাঁকে।

বয়সের ভারে ন্যুব্জ সম্রাট আকিহিতো (৮৩) এরই মধ্যে নাতনির এই সিদ্ধান্তে সম্মতি দিয়েছেন। তিনি আগেই জানিয়েছিলেন, বয়সের কারণে রাজকার্য তিনি আর চালিয়ে যেতে পারছেন না। তবে জাপানে জীবিত রাজার রাজদণ্ড ছেড়ে দেওয়ার বিধান নেই। নতুন বিধান তৈরি করতে কাজ করছে দেশটির মন্ত্রিসভা। মন্ত্রিসভাসচিব ইয়োশিহিদে সুগা জানান, রাজকুমারীর এই সিদ্ধান্ত তাঁদের কাজে কোনো প্রতিবন্ধকতা তৈরি করবে না। সূত্র : বিবিসি, রয়টার্স।


মন্তব্য