kalerkantho


ক্যান্সার চিকিৎসায় জ্যোতির্বিজ্ঞান!

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৪ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



ক্যান্সার চিকিৎসায় জ্যোতির্বিজ্ঞান!

গবেষণার দিক থেকে জ্যোতির্বিজ্ঞানের সঙ্গে ক্যান্সারবিরোধী লড়াইয়ের সাদৃশ্য হয়তো খুবই কম। কিন্তু এ দুই গবেষণার মধ্যে জোট হলে ব্যাপারটা কী দাঁড়াবে! আপাতত যেটা দাঁড়িয়েছে, কান্সারবিরোধী লড়াইয়ে নাকি অনেকখানি এগিয়ে গেছেন বিশেষজ্ঞরা।

আর এতে কাজে লাগানো হয়েছে জ্যোতির্বিজ্ঞানের ডাটা (তথ্য-উপাত্ত) বিশ্লেষণের অ্যালগরিদম।

বিজ্ঞান বলছে, বিশ্বে এ যাবৎ যত ডাটা তৈরি হয়েছে, এর ৯০ শতাংশই নাকি হয়েছে গত দুই বছরে। আর এসব ডাটার সমন্বয়ে বিপ্লব ঘটে গেছে কম্পিউটারে, যা এখন প্রায় সব ধরনের ডাটার সমাহার। এই ডাটা ও যন্ত্রের ঘনিষ্ঠ সম্পর্কে উপকৃত হয়েছে চিকিৎসাবিজ্ঞান; ক্যান্সারবিরোধী গবেষণা তো বটেই।

কিভাবে? জবাবে যুক্তরাজ্যের ক্যান্সার গবেষণাকেন্দ্রের অধ্যাপক কার্লোস ক্যালডাস বলছেন, ‘জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা আকাশ নিয়ে গবেষণা করেন। এ গবেষণায় তাঁদের কাছে যে হাজার হাজার কোটি ছবি ও তথ্য আছে, তা হাত দিয়ে পৃথক করা সম্ভব নয়। এ জন্য তাঁরা বিষয়বস্তু নির্দিষ্টকরণের ক্ষেত্রে অ্যালগরিদম প্রয়োগ করেছেন। আমাদের কাছেও মানব কোষের কোটি কোটি চিত্র আছে। এখন প্রশ্ন হলো, এ ক্ষেত্রে অ্যালগরিদম কাজ করবে কি না! উত্তর হলো, করবে।

এ জোতির্বিজ্ঞানের অ্যালগরিদম দিয়েই মানব কোষকে আলাদাকরণ সম্ভব। আর সম্ভব হওয়ার মানে হলো, ক্যান্সারবিরোধী লড়াইয়ে অনেক দূর এগিয়ে যাওয়া। ’

বিষয়টি নিয়ে জ্যোতির্বিজ্ঞানী ও ক্যান্সার বিশেষজ্ঞদের মধ্যে তথ্য-উপাত্ত আদানপ্রদানের কাজও শুরু হয়েছে বলে জানান ক্যালডাস। সূত্র : বিবিসি।

 


মন্তব্য