kalerkantho


চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলা

খালেদা জিয়ার আবেদন বাতিল আদেশ বহাল

নাইকো দুর্নীতি মামলার বিষয়ে শুনানি ১৬ মার্চ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৩ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



খালেদা জিয়ার আবেদন বাতিল আদেশ বহাল

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ৩২ জনের পুনঃসাক্ষ্য নেওয়ার নির্দেশনা চেয়ে আবেদন করেছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। তাঁর সেই আবেদন খারিজ করে হাইকোর্টের দেওয়া আদেশ বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগ।

প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বে আপিল বিভাগের তিন সদস্যের বেঞ্চ গতকাল রবিবার এ রায় দেন।

এদিকে নাইকো দুর্নীতি মামলার কার্যক্রম স্থগিত করে হাইকোর্টের দেওয়া আদেশের বিরুদ্ধে দুদকের আবেদনের ওপর আগামী ১৬ মার্চ আপিল বিভাগে শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে।

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলা

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় পুনরায় ৩২ জনের সাক্ষ্য নেওয়ার নির্দেশনা চেয়ে খালেদা জিয়ার করা আবেদন খারিজ করে গত ১২ জানুয়ারি আদেশ দেন হাইকোর্ট। তবে আদালত ভবিষ্যতে শপথ আইন অনুযায়ী এবং ২০০৯ সালে সুপ্রিম কোর্টের জারি করা প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী সব মামলায় যাতে যথাযথভাবে সাক্ষ্য নেওয়া হয় তা নিশ্চিত করতে আইন সচিব ও সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেলকে নির্দেশ দেন।

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে তিন কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা লেনদেনের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) ২০১০ সালের ৮ আগস্ট তেজগাঁও থানায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ চারজনের বিরুদ্ধে মামলা করে। অপর তিন আসামি হলেন খালেদা জিয়ার তৎকালীন রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরী, হারিছ চৌধুরীর তৎকালীন একান্ত সচিব জিয়াউল ইসলাম মুন্না ও ঢাকা সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার একান্ত সচিব মনিরুল ইসলাম খান। ২০১৪ সালের ১৯ মার্চ আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ (চার্জ) গঠন করেন ঢাকা তৃতীয় বিশেষ জজ আদালত। ৩২ জন সাক্ষী সাক্ষ্য দিয়েছেন। তাঁদের সাক্ষ্য ও জেরা বাতিল চেয়ে আবেদন করা হয় বিচারিক আদালতে।

ওই আদালত তা খারিজ করে দেন। গত বছরের ৬ ডিসেম্বর হাইকোর্টে রিভিশন আবেদন করেন খালেদা জিয়া। গত ১২ জানুয়ারি এই আবেদন খারিজ করে দেন হাইকোর্ট। এ খারিজ আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করার অনুমতি চেয়ে (লিভ টু আপিল) আবেদন করেন খালেদা জিয়া। গতকাল এই আবেদন খারিজ করে দেন আপিল বিভাগ। গতকাল আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে আইনজীবী ছিলেন এ জে মোহাম্মদ আলী ও ব্যারিস্টার বদরুদ্দোজা বাদল। দুদকের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট খুরশীদ আলম খান। আদেশের পর খালেদার আইনজীবীরা বলেন, এরপর রিভিউ আবেদন করা হবে।

নাইকো দুর্নীতি মামলা

গত ৭ মার্চ হাইকোর্ট খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে নাইকো দুর্নীতি মামলার কার্যক্রম স্থগিত করেন। এই আদেশ স্থগিত করতে দুদক আপিল বিভাগের চেম্বার বিচারপতির আদালতে আবেদন করে। গতকাল বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের চেম্বার আদালতে শুনানি হয়। শুনানি শেষে আদালত কোনো স্থগিতাদেশ না দিয়ে আগামী ১৬ মার্চ আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে শুনানির জন্য দিন নির্ধারণ করেন। গতকাল আদালতে দুদকের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট খুরশীদ আলম খান। খালেদা জিয়ার পক্ষে ছিলেন এ জে মোহাম্মদ আলী।


মন্তব্য