kalerkantho


বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়

স্থায়ী ক্যাম্পাসে যেতে কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী ব্যবস্থা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৮ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



স্থায়ী ক্যাম্পাসে যেতে কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী ব্যবস্থা

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর স্থায়ী ক্যাম্পাসে না যাওয়ার কারণসহ অন্যান্য সমস্যা চিহ্নিত করার জন্য চার সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। গতকাল মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনে (ইউজিসি) শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও ইউজিসির এক যৌথ সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

কমিটিকে ৩০ জুন পর্যন্ত সময় দেওয়া হয়েছে। ফলে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো স্থায়ী ক্যাম্পাসে যেতে কার্যত ৩০ জুন পর্যন্ত সময় পেল।

বৈঠক শেষে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ সাংবাদিকদের জানান, চার সদস্যের কমিটির প্রধান করা হয়েছে ইউজিসির সদস্য অধ্যাপক আখতার হোসেনকে। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন ইউজিসির সদস্য এম শাহ নওয়াজ আলী ও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (বিশ্ববিদ্যালয়) আব্দুল্লাহ আল হাসান চৌধুরীকে। ইউজিসির উপপরিচালক জেসমিন পারভীন এ কমিটির সদস্যসচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এই কমিটি আগামী ৩০ জুনের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন জমা দেবে। তবে এর আগেও তারা সময়ে সময়ে জরুরি ভিত্তিতে সুপারিশ করবে। এর ভিত্তিতে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্ত্রী আরো বলেন, ‘আমাদের উদ্দেশ্য বিশ্ববিদ্যালয়গুলো বন্ধ করা নয়, সেগুলো যেন আরো ভালোভাবে চলে। তবে আজকেই তো কোনো সিদ্ধান্ত দিতে পারি না। তাই সমস্যা চিহ্নিত করার জন্য কমিটি করা হয়েছে। ’

চারবার সময় বৃদ্ধির পরও স্থায়ী ক্যাম্পাসে যেতে পারেনি ৩৯টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়। সর্বশেষ ৩১ জানুয়ারি ছিল শেষ সময়। এর ৩৬ দিন পর ইউজিসিতে এ বিষয় বৈঠকে বসল শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এ বৈঠকে ইউজিসি চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নানসহ মন্ত্রণালয় ও ইউজিসির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

ইউজিসি সূত্র জানিয়েছে, কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাসে যাওয়ার সময় পার হয়েছে ১০-১৫ বছর আগে, আবার কারো দুই-চার বছর আগে। এখন যদি শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয় তাহলে সবাইকে তো আর সমান শাস্তি দেওয়া যায় না। কেউ বেশি পাবে কেউ কম পাবে। এ জন্যই কমিটি গঠন করা হয়েছে। তবে যারা ইতিমধ্যে আংশিকভাবে স্থায়ী ক্যাম্পাসে গেছে তারা পুরোপুরি যাওয়ার সময় পাবে। আর বাকিদের ক্ষেত্রে কোনো নিষেধাজ্ঞা বা শর্ত আরোপ করা যায় কি না সে বিষয়ে বৈঠকে আলোচনা হয়েছে।

গত সপ্তাহে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় মালিকদের সংগঠন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় সমিতি স্থায়ী ক্যাম্পাসে যাওয়ার ক্ষেত্রে নানা প্রতিবন্ধকতা তুলে ধরে সময় বৃদ্ধির আবেদন করেছিল।


মন্তব্য