kalerkantho


সবিশেষ

ডিএনএ যখন হার্ড ড্রাইভ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৭ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



বিজ্ঞানীদের আশঙ্কা, ভবিষ্যতে মানুষ এত পরিমাণে তথ্য উৎপাদন করবে, যা আর কোনো হার্ড ড্রাইভ বা ম্যাগনেটিক টেপে সংরক্ষণ করা সম্ভব হবে না। তখন দরকার পড়বে এমন কিছু, তথ্য সংরক্ষণে যার কোনো সীমাবদ্ধতা থাকবে না।

এমন আশঙ্কা থেকে ‘অসীম’ হার্ড ড্রাইভ বানানোর গবেষণা শুরু হয়ে গেছে। সমাধানও নাকি মিলেছে; যার নাম—ডিএনএ।

কলাম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয় ও নিউ ইয়র্ক জেনম সেন্টারের গবেষকরা ডিএনএর ভেতরে স্টোর করে ফেলেছেন কম্পিউটারের অপারেটিং সিস্টেম, একটি ছোট ছবি এবং বেশ কিছু তথ্য। ‘সায়েন্স’ সাময়িকীতে প্রকাশিত একটি গবেষণায় বলা হয়েছে, মোবাইল ফোনে ভিডিও স্ট্রিমিংয়ের জন্য ডিজাইন করা অ্যালগরিদমের সাহায্যেই ডিএনএর স্টোরেজ ক্ষমতার সম্পূর্ণ ব্যবহার করা যেতে পারে। ডিএনএএর চারটি বেস নিউক্লিওটাইডে বেশি পরিমাণে তথ্য সংরক্ষণ করা যাবে বলেও মনে করেন বিজ্ঞানীরা।

ঠাণ্ডা, শুকনো জায়গায় সঠিকভাবে ডিএনএ সংরক্ষণ করলে, সেসব তথ্য সুরক্ষিত থাকবে কয়েক হাজার বছর। ডিএনএর ভেতর স্টোর বা রাইট করার জন্য গবেষকরা ছয়টি ফাইল নিয়েছিলেন। এর মধ্যে ছিল একটি ফরাসি ছবি, ৫০ ডলারের একটি অ্যামাজন গিফট কার্ড, কম্পিউটার ভাইরাস, পায়োনির প্লাক এবং একটি রিসার্চ পেপার। এসব তথ্য একটি মাস্টার ফাইলে রেখে সব ডাটা বাইনারি কোডে ভেঙে তা ডিএনএএর এ, জি, সি এবং টি নিউক্লিওটাইডে ম্যাপ করে দেওয়া হয়।

গবেষকরা জানান, এখনো পর্যন্ত এটিই সব থেকে বেশি ঘনত্বের তথ্য সংরক্ষণের ডিভাইস। সূত্র : এই সময়।


মন্তব্য