kalerkantho


লেখকের সেরা বই

জিং হোং ময়ূরের গ্রাম

শাকুর মজিদ

২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



জিং হোং ময়ূরের গ্রাম

কিছুদিন পর পর বিদেশে ঘোরার নেশা আমার এখনো কাটেনি। ১৯৯০ সাল থেকে শুরু। এ পর্যন্ত ৩০টির বেশি দেশ দেখা হয়েছে আমার। যেখানে যেভাবে যা দেখি তার কথাই নানাভাবে আমি অন্যকে শোনাতে চাই। প্রথম তিন দেশ সফর করে ট্রাভেলর্স ক্লিক্স নামে আলোকচিত্রের প্রদর্শনী করি। পরে দেশ সফরে নিয়ে যাই ভিডিও ক্যামেরা। ধারণ করা ফুটেজ দিয়ে বানিয়ে ফেলি কতগুলো ভ্রমণচিত্র। নাম দিই পৃথিবীর পথে পথে। আবার চলতে থাকে ভ্রমণগ্রন্থ প্রকাশ। এ বছর প্রকাশ পেল উনিশ ও কুড়িতম ভ্রমণগ্রন্থ পৃথিবীর পথে পথে (গ্রন্থ কুটির) এবং জিং হোং ময়ূরের গ্রাম (পাঞ্জেরী পাবলিকেশন্স)

চীন আমার প্রিয় দেশগুলোর একটি। চীন থেকে ইলেকট্রনিকস কিনে দেশে আসার পর মন খারাপ হওয়া ছাড়া চীন নিয়ে আমার কোনো অভিযোগ নেই।

এত বৈচিত্র্য, এত নিজস্বতা নিয়ে পৃথিবীর খুব কম দেশই আছে। আমি এ পর্যন্ত নানা কারণে চারবার এই দেশে গিয়েছি। ২০০৬ থেকে ২০০৮ সালের মধ্যে চীন সফর করা হয়েছে তিনবার। এই তিনবারই নানাভাবে চীনা সরকারের আমন্ত্রণে তাদের দেশ দেখতে যাওয়া। এ নিয়ে এর আগে মিং রাজের দেশে এবং নাশিপাড়া লিজিয়াং নামে দুটি ভ্রমণ কাহিনি লিখেছিলাম। প্রকাশ করেছিল উত্স প্রকাশনী। ২০০৮ সালে ইউন নান প্রদেশের একটা ছোট্ট শহর জিং হোংয়ে ছয় দিন কাটিয়েছিলাম কয়েকটি উপজাতির জীবন যাপন আর তাদের উত্সব-আচার দেখতে।

চীনের ইউন নান প্রদেশের রাজধানী শহর খুন মিং থেকে উত্তর-পূর্ব কোনাকুনি ৬০০ কিলোমিটার দূরে চীনের দক্ষিণ সীমান্তে মিয়ানমার আর লাওসের সীমানার কাছাকাছি অঞ্চল শিশুয়াং পান্না। শিশুয়াং পান্না মানে ‘বারো হাজার ধানক্ষেত’। এর রাজধানী জিং হোং একটা ছোট্ট শহরতলী। প্রায় ২০ বর্গকিলোমিটার আয়তনের এই অঞ্চলে প্রায় পাঁচ লাখ লোকের বাস।

এই অঞ্চলটি বিখ্যাত অন্য কারণে। চীনের ৫৬টি নৃগোষ্ঠীর ১২টিরই বাস এখানে। ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর আদিবাসীরা এই অঞ্চলে বসবাস করছে তাদের নিজস্ব সংস্কৃতি নিয়ে। মূলধারার সঙ্গে তাদের যোগাযোগ সামান্যই। এখানে যে ১২টি ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর আদিবাসীর বাস, তার মধ্যে দাই সম্প্রদায়ের জনসংখ্যা সবচেয়ে বেশি। মজার ব্যাপার হচ্ছে, আধুনিকতার করাল গ্রাসে হারিয়ে যাওয়া এসব নৃগোষ্ঠীও জীবন যাপনের চিহ্নগুলো এখনো এ অঞ্চলে অবিকৃত আছে। যেখানে নেই, সেখানে সেসব আগের মতো করে সাজিয়ে দেওয়া। এই ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর দাই, আইনি, হানি, ওয়া সম্প্রদায়ের মানুষের সঙ্গে আট দিন কাটিয়ে তাদের জীবনযাত্রা, সংস্কৃতি ও নাগরিক পরিবেশ নিয়ে লিখেছি এই ভ্রমণগ্রন্থ। গ্রন্থটি প্রকাশ করেছে পাঞ্জেরী পাবলিকেশন্স। মূল্য ১৮০ টাকা।


মন্তব্য