kalerkantho


এ কোন্ বাংলাদেশি সমাজ

আহমদ রফিক

২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



এ কোন্ বাংলাদেশি সমাজ

পাকিস্তানি আমলের স্বৈরাচারী-অনাচারী শাসন ও পুব-পশ্চিমের নানামাত্রিক বৈষম্যের প্রতিক্রিয়ায় স্বাধীন বাংলাদেশের জন্ম। এই বাংলা নিয়ে অনেকটা আবেগতাড়িত হয়ে মানুষ স্বপ্ন দেখেছে শান্তি ও সমৃদ্ধির এক সমাজ, অসাম্প্রদায়িক সমাজের।

অবশ্য রাজনীতির ভিন্ন ধারায় কিছু ব্যতিক্রম বাদে। তাই সাময়িক রাজনৈতিক বিভেদ এক পাশে সরিয়ে রেখে দল-মত-নির্বিশেষে ঐক্যবদ্ধ বাঙালি সমাজ একাত্তরের যুদ্ধে যোগ দিয়েছিল। অবশ্য এখানেও ছিল কিছু ভিন্ন মত ও ব্যতিক্রম।

কিন্তু স্বাধীন বাংলাদেশের সামাজিক ছবিটা ওই স্বপ্নের মতো করে তৈরি হতে পারেনি। রাজনৈতিক ক্ষমতার লোভ পাকিস্তানি কায়দায় সমরতন্ত্র ও স্বৈরতন্ত্রের জন্ম দিয়েছে। সেসব শাসন চলেছে দীর্ঘ সময় ধরে। জাতীয়তাবাদ উপলক্ষে জাতি বিভাজিত হয়েছে। আবার দেখা দিয়েছে সাম্প্রদায়িক সংকীর্ণতা, কখনো সহিংসতা, রাজনৈতিক দ্বন্দ্ব ও সংঘাত এবং রক্তপাত। এমনকি নারী নির্যাতন ও হত্যা, গুম, খুন ও শিশুহত্যা।

এক কথায় সামাজিক নৈরাজ্য ও অস্থিরতা।

দীর্ঘ কয়েক দশকের কথিত গণতান্ত্রিক শাসনেও পূর্বোক্ত সামাজিক পরিস্থিতির বড় একটা পরিবর্তন ঘটেনি। অর্থনৈতিক উন্নয়ন, যোগাযোগ খাতের উন্নয়ন সত্ত্বেও সমাজ বদল ঘটেনি। সমাজ মনে হয় প্রতাপশালী সামাজিক শক্তির শাসনে বিপরীত পথ ধরে চলা পছন্দ করছে। সুস্থ সামাজিক শক্তি ক্রমেই পিছিয়ে পড়ছে। সামাজিক অবক্ষয় ও সামাজিক দূষণ থেকে মুক্তি মিলছে না।

সমাজের এ অবাঞ্ছিত পরিস্থিতির টানে সংঘটিত ছোট বড় অঘটনের খণ্ডচিত্র ছোট ছোট নিবন্ধে তুলে ধরেছেন সমাজ ও রাজনীতির বিশ্লেষক আহমদ রফিক তাঁর সদ্য প্রকাশিত ‘এ কোন্ বাংলাদেশি সমাজ’ বইটিতে। হেন বিষয় নেই, যা এ বইতে স্থান পায়নি, মায় জঙ্গিবাদ। বইটির প্রকাশক অনিন্দ্য প্রকাশ।


মন্তব্য