kalerkantho


নিউ ইয়র্কে ছুরি মেরে বাংলাদেশি ব্যবসায়ী হত্যা

নিউ ইয়র্ক প্রতিনিধি ও সিলেট অফিস   

২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



নিউ ইয়র্কে ছুরি মেরে বাংলাদেশি ব্যবসায়ী হত্যা

জাকির খান

যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কে এক বাড়িওয়ালা ছুরি মেরে তাঁর ভাড়াটিয়া বাংলাদেশি ব্যবসায়ীকে হত্যা করেছেন। স্থানীয় সময় গত বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে ব্রঙ্কসের লোগান এভিনিউয়ের থ্রোগস নেক সেকশনে বাসার সামনে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ঘাতক বাড়িওয়ালাকে গ্রেপ্তার করেছে।

নিহত জাকির খান (৪৪) নিউ ইয়র্ক প্রবাসীদের মধ্যে অত্যন্ত পরিচিত মুখ। তিনি সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জের পাঠানটিলা গ্রামের মৃত এজাফত খানের ছেলে। তিনি ব্রঙ্কসের পার্কচেস্টারে রিয়েল এস্টেট কম্পানি নামে একটি ব্রোকার প্রতিষ্ঠান চালাতেন। তাঁর ১৩ বছর বয়সী এক মেয়ে এবং ১০ ও সাত বছর বয়সী দুই ছেলে রয়েছে। চলতি মাসের শেষদিকে জাকিরের দেশে ফেরার কথা ছিল।

ব্রঙ্কস পুলিশ জানায়, বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে ৯১১-এ কল পাওয়ার পর তারা ব্রঙ্কসের থ্রোগস নেক সেকশনের ওই বাড়িটিতে যায়।

সেখানে তারা জাকির খানকে রক্তাক্ত অবস্থায় পায়। দ্রুত উদ্ধার করে জ্যাকোবি মেডিক্যাল সেন্টারে নেওয়া হলে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

৫১ বছর বয়সী মিসরীয় নাগরিক ওই বাড়িওয়ালাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

জানা গেছে, বাড়িভাড়া নিয়ে জাকিরের সঙ্গে মালিকের বছরখানেক ধরে বিরোধ চলছিল। ঘটনার দিন উভয়ের মধ্যে বাগিবতণ্ডা হয়। জাকির ওই বাসায় দীর্ঘদিন ধরে ভাড়া ছিলেন। ১৯৯২ সালে তিনি যুক্তরাষ্ট্রে আসেন। ব্যবসার পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডেও যুক্ত ছিলেন। তিনি ফেঞ্চুগঞ্জের শিক্ষার উন্নয়নে এজাফত খান স্মৃতি বৃত্তি চালু করেন। তাঁর সাত ভাই, পাঁচ বোনসহ পরিবারের সবাই যুক্তরাষ্ট্রে স্থায়ীভাবে বসবাস করে।

জাকিরের খুন হওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়লে প্রবাসী বাংলাদেশিদের অনেকেই হাসপাতালে জড়ো হয়। ঘাতকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করে তারা। ময়নাতদন্তের জন্য জাকিরের মরদেহ পুলিশ হেফাজতে রয়েছে। কোথায় তাঁর লাশ দাফন করা হবে, এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত স্বজনরা তা নিশ্চিত করে জানাতে পারেনি।


মন্তব্য