kalerkantho


চট্টগ্রামে অনেক স্কুল বাড়তি ভর্তি ফি ফেরত দেয়নি

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



চট্টগ্রামে অনেক স্কুল বাড়তি ভর্তি ফি ফেরত দেয়নি

চট্টগ্রামে ভর্তি বাণিজ্যে অভিযুক্ত ৪৬টি বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে আগামী ২৩ ফেব্রুয়ারির মধ্যে ভর্তি ফির অতিরিক্ত টাকা ফেরত দেওয়ার নির্দেশনা রয়েছে জেলা প্রশাসনের। কিন্তু এখনো বেশির ভাগ বিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে নেওয়া বাড়তি টাকা ফেরত দেয়নি বলে অভিযোগ উঠেছে।

এদিকে গতকাল শনিবার থেকে টাকা ফেরত দিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষ ও অভিভাবকদের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টি করতে মাঠে নেমেছে কনজ্যুমার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ক্যাব) চট্টগ্রাম মহানগর কমিটি। সকাল থেকে ক্রেতা-ভোক্তাদের প্রতিনিধিত্বকারী এ প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা বাড়তি টাকা নেওয়া নগরের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যান। এ সময় তাঁরা স্কুল পরিদর্শন ও অভিভাবকদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।

প্রচারাভিযান কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন ক্যাব চট্টগ্রাম মহানগর কমিটির সহসভাপতি হাজি ইকবাল আলী আকবর, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক জান্নাতুল ফেরদৌস, যুগ্ম সম্পাদক জানে আলম, ক্যাব চান্দগাঁও থানার সহসভানেত্রী ফারহানা জসিম প্রমুখ।

কর্মসূচির আওতায় গতকাল ক্যাবের টিম সিডিএ পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ, সিডিএ গার্লস স্কুল, বাংলাদেশ মহিলা সমিতি উচ্চ বিদ্যালয়, কাজেম আলী উচ্চ বিদ্যালয়, মেরন সান স্কুল অ্যান্ড কলেজ, মেরিট বাংলাদেশ স্কুল অ্যান্ড কলেজ, কর্ণফুলী পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ, ন্যাশনাল পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ, এশিয়ান স্কুল অ্যান্ড কলেজ, বেপজা স্কুল অ্যান্ড কলেজ, ইস্টার্ন রিফাইনারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়, বাংলাদেশ নৌবাহিনী উচ্চ বিদ্যালয়, টিএসপি কমপ্লেক্স মাধ্যমিক বিদ্যালয়সহ বিভিন্ন বিদ্যালয় পরিদর্শন এবং অভিভাবক ও স্কুল কর্তৃপক্ষের সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের মধ্যে লিফলেট বিতরণ করে।

সরকারি ভর্তি নীতিমালা অনুযায়ী, কোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষার্থীপ্রতি সর্বোচ্চ তিন হাজার টাকার বেশি ভর্তি ফি নিতে পারবে না। কিন্তু গত জানুয়ারি মাসে অনেক প্রতিষ্ঠানই তিন হাজারের বেশি অর্থ আদায় করে। এরপর জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে পাঁচটি মনিটরিং কমিটি অভিযোগ তদন্ত করে বেসরকারি ৪৬টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে অতিরিক্ত ফি আদায়ের প্রমাণ পায়। এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধান ও প্রতিনিধিদের নিয়ে গত ৮ ফেব্রুয়ারি জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে বৈঠক করেন চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মো. সামশুল আরেফিন।

ওই সভায় অতিরিক্ত ফি গ্রহণকারী ৪৬ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে ১০ দিনের সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়। আগামী ২৩ ফেব্রুয়ারির মধ্যে বাড়তি টাকা ফেরত দিতে হবে নতুবা বাড়তি টাকা সমন্বয় করার জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়েছিল।


মন্তব্য