kalerkantho


আলোচনা সভায় ফখরুল

খালেদাকে জেলে পাঠালে দেশে নির্বাচন হবে না

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



খালেদাকে জেলে পাঠালে দেশে নির্বাচন হবে না

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে ‘মিথ্যা মামলায়’ সাজা দিয়ে জেলে পাঠানো হলে দেশে কোনো নির্বাচন হবে না বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেছেন, ‘দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলা দিয়ে যদি জেলে পাঠানো হয়, তাহলে এ দেশে কোনো নির্বাচন হবে না।

জনগণ এ নির্বাচন মেনে নেবে না। দেশপ্রেমিক কোনো দল এ নির্বাচনে অংশ নেবে না। আমরা নির্বাচন করতে চাই। কিন্তু সেই নির্বাচনের আগে দরকার লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড। আমরা চাই সব দলের অংশগ্রহণমূলক এবং সকলের কাছে গ্রহণযোগ্য একটি নির্বাচন। ’ এ জন্য জাতীয় ঐক্য গড়ে তুলতে সবার প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

গতকাল বুধবার বিকেলে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তনে বাংলাদেশ পিপলস পার্টি (এনপিপি) আয়োজিত ‘একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করার লক্ষ্যে সহায়ক সরকারের দাবি’ শীর্ষক আলোচনা সভায় ফখরুল এ কথা বলেন।

ড. ইউনূস দেশের গর্ব মন্তব্য করে ফখরুল বলেন, ‘ড. ?ইউনূস আমাদের গর্ব। সারা পৃথিবী তাঁকে সম্মান দিচ্ছে।

আপনি (প্রধানমন্ত্রী) তাঁকে ব্যক্তিগতভাবে শত্রু চিহ্নিত করেছেন। কারণ, লোকে বলে, নোবেল পুরস্কার নাকি আপনার প্রাপ্য ছিল। পার্বত্য চট্টগামে তথাকথিত শান্তিচুক্তির কারণে প্রধানমন্ত্রীর প্রাপ্য ছিল ওই পুরস্কার। কিন্তু ড. ইউনূস পাতা ভাতের মধ্যে ছাই দিয়ে দিয়েছেন। ’

প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদাকে দলীয় ব্যক্তি আখ্যা দিয়ে বিএনপির এই নেতা বলেন, নুরুল হুদা ছাত্ররাজনীতি করেছেন। পরে রাজনৈতিক সংশ্লিষ্টতার কারণে সরকারি চাকরি হারিয়েছেন। ২০০৮ সালে নির্বাচনে তাঁকে আওয়ামী লীগের প্রচারের দা?য়িত্ব দেয়া হয়েছিল। এসবের সব প্রমাণ আছে।

নতুন নির্বাচন কমিশনের অধীনে নির্বাচন যাওয়া না-যাওয়া প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমরা স্থানীয় সরকারের নির্বাচনে বরাবরই অংশ নিয়েছি। জাতীয় সংসদ নির্বাচনে যাব কী যাব না, সম্পূর্ণভাবে নির্ভর করবে সেই সময় কোন ধরনের সরকার থাকছে, নির্বাচন কমিশনের কী ভূমিকা থাকে তার ওপর। আমরা নির্বাচনকালীন সরকারের সময় নিরপেক্ষ সরকার চাই; যে সরকার নিরপেক্ষ নির্বাচন করবে, নির্বাচন কমিশনকে সহায়তা করবে। ’

অনুষ্ঠানে এনপিপির চেয়ারম্যান ফরিদুজ্জামান ফরহাদের সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য দেন জাগপা সভাপতি শফিউল আলম প্রধান, লেবার পার্টির চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ইরান প্রমুখ।


মন্তব্য