kalerkantho


সবিশেষ

ভালোবাসা দিবসে সরকারি গোলাপ!

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



ভালোবাসা দিবসে গোলাপ ফুল বিক্রি করবে সরকার। তাও ন্যায্য দামে।

রাষ্ট্রীয়ভাবে ‘প্রেমের এমন পৃষ্ঠপোষকতা’ দেখে আপনার চমকে যাওয়ারই কথা। ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার এমনটাই করতে যাচ্ছে আজ মঙ্গলবার বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে। তবে ভালোবাসা দিবসে ফুল বিক্রির এই প্রকল্পের আসল কারণটা কিন্তু ‘প্রেমের পৃষ্ঠপোষকতা’ নয়। তবু এক ধরনের প্রেমের বিষয়ও রয়েছে এতে।

কলকাতায় আজ সরকারি উদ্যোগে শহরজুড়ে বিভিন্ন কলেজ, বিনোদন কেন্দ্র, পার্ক, শপিং মলের সামনে গোলাপের ডালি সাজিয়ে হাজির হবে গাড়ি। যেসব জায়গায় তরুণ-তরুণীদের জমায়েত বেশি হয়, ফুলের সম্ভার নিয়ে ওই সব এলাকায় পৌঁছে যাবে ফুলের গাড়ি। সল্টলেকের সিটি সেন্টার, নিক্কো পার্ক, নিউ টাউনের ইকো পার্ক, কলেজ স্ট্রিটের প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়, নন্দন চত্বরের মতো এলাকায় মিনিপল, ডাচ গোলাপ, লিলি, অর্কিড, হ্যালিকোনিয়ার মতো বিভিন্ন ফুলের সম্ভার মিলবে।

জানা গেছে, শহরের পথে পথে গোলাপ বিক্রির এই প্রকল্প যৌথভাবে হাতে নিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ ও উদ্যান পালন উন্নয়ন দপ্তর এবং কলকাতার বহু পুরনো গ্লোব নার্সারি। ভালোবাসা দিবসে তারা ফুল বিক্রি করলেও ফুলের গাড়িগুলোতে ভালোবাসা দিবস উদ্‌যাপনের কথা লেখা থাকবে না।

শুধুই যৌথ প্রকল্পের মাধ্যমে ফুল বিক্রির বিষয়টি উল্লেখ থাকবে। উদ্যান পালন উন্নয়ন দপ্তরের কর্মকর্তারা জানান, সরকার প্রেম দিবস কিংবা ‘ভ্যালেন্টাইনস ডে’র মতো কিছু পালনে সরাসরি যুক্ত হতে পারে না। ‘ভ্যালেন্টাইনস ডে’র মতো একটি দিনে ফুলচাষিদের ব্যবসার সুযোগ করে দিতেই এমন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। পেছনে ফুলচাষিদের ন্যায্য মূল্য পাইয়ে দেওয়ার মতো ভালোবাসার বিষয়ও রয়েছে সরকারের।

রাজ্যের খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ ও উদ্যান পালন উন্নয়ন নিগমের মন্ত্রী আব্দুর রেজ্জাক মোল্লা জানিয়েছেন, এই দিনে গোলাপ ফুলের ব্যাপক চাহিদা থাকে। ফড়িয়াদের মাধ্যমে কম দামে কেনা ফুল বাজারে এসে চড়া দামে বিক্রি হয়। কিন্তু চাষিরা লাভের মুখ দেখে না। তাই চাষিদের কাছ থেকে সরাসরি ওই দিন ফুল কিনবে গ্লোব নার্সারি। চাষিকে উপযুক্ত দাম দেওয়াই এই উদ্যোগের উদ্দেশ্য। সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা।


মন্তব্য