kalerkantho


সবিশেষ

বেলুন ফাটার শব্দে ‘বধির’

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



নানা কারণে মানুষের শ্রবণশক্তি ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। এর মধ্যে শব্দদূষণ অন্যতম।

এবার গবেষকরা জানিয়েছেন, বেলুন ফাটার শব্দেও নষ্ট হতে পারে শ্রবণশক্তি। তাই বেলুন নিয়ে শিশুদের খেলতে দিয়ে লক্ষ্য রাখতে হবে যাতে তার কানের কাছেই সেটি ফুটিয়ে না ফেলে। বেলুন ফাটার ফলে যে বিশেষ শব্দ হয় তা কখনো কখনো শটগানের গুলির শব্দের মতোই প্রতিক্রিয়া তৈরি করতে পারে বলে সতর্ক করেছেন গবেষকরা।

কানাডার ইউনিভার্সিটি অব আলবার্টার গবেষকরা এই গবেষণাটি করেছেন। তাঁরা এ জন্য বেলুনের শব্দের বিভিন্ন মাত্রা এবং তা কানের ওপর কী ধরনের প্রভাব ফেলতে পারে, এর ওপর অনুসন্ধান করেন। এতে উঠে এসেছে বেলুনের শব্দের এ মারাত্মক বিপজ্জনক বিষয়।

গবেষকরা বলছেন, যারা বেলুন দিয়ে পার্টি সাজায় তাদের তা বাদ দিতে বলা হচ্ছে না। কিন্তু শিশুদের বেলুন ফোটানোর খেলা করার আগে একটু ভেবে দেখতে হবে। কারণ এই বেলুন ফেটে তাদের শ্রবণশক্তি নষ্ট করে বধির করে দিতে পারে।

গবেষক ও অ্যাসোসিয়েট প্রফেসর বিল হডগেটস বলেন, ‘যেসব কারণে মানুষের শ্রবণশক্তি নষ্ট হয়, সেসব বিষয়ে আমরা সতর্ক করতে চাইছি। কারণ আপনার শ্রবণশক্তি যদি একবার নষ্ট হয় তাহলে কোনো হিয়ারিং এইড দিয়েই তা স্বাভাবিকের মতো করা সম্ভব নয়। ’

কানের ওপর বেলুনের শব্দ কেমন প্রভাব ফেলে, তা বোঝার জন্য বিভিন্ন ধরনের বেলুন ফোটানোর শব্দ পরিমাপ করেন গবেষকরা। এতে তাঁরা জানান কোনো কোনো বেলুন ফোটানোর ফলে ১৬৮ ডেসিবল পর্যন্ত শব্দ পাওয়া গেছে। যা ১২ গজ শটগানের শব্দের চেয়েও বেশি। আর কানাডার নিয়ম অনুযায়ী ১৪০ ডেসিবলের বেশি শব্দ কানের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। আর এ বেলুনের শব্দ শ্রবণশক্তি নষ্ট করে দিতে পারে। সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস।


মন্তব্য