kalerkantho


সবিশেষ

টয়লেটে গেলে উল্টো অর্থ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



ভারতে এখনো বহু মানুষ শৌচাগার বা টয়লেট ব্যবহার করে না। তাদের মধ্যে নিয়মিত টয়লেট ব্যবহারের অভ্যাস গড়ে তুলতে দেশটির সরকারের পক্ষ থেকে নেওয়া হচ্ছে ব্যাপক উদ্যোগ। পাবলিক টয়লেটে গেলে যেখানে গাটের অর্থ খরচ করতে হয় সেখানে উল্টো কি না অর্থ দেবে কর্তৃপক্ষ। মানুষকে টয়লেট ব্যবহারে উদ্বুদ্ধ করতে এমনই অনন্য পদক্ষেপ নিয়েছেন রাজস্থানের বারমার জেলা প্রশাসক সুধীর শর্মা। যেসব পরিবার নিয়মিত টয়লেট ব্যবহারের অভ্যাস করবে, তারা মাসে মাসে পাবে আড়াই হাজার রুপি। গত সোমবার রাজস্থানের বায়টু ও গিরা নামের দুটি গ্রামে এই ভিন্নধর্মী প্রকল্প চালু করেছেন শর্মা।

‘স্বচ্ছ ভারত মিশনের’ অংশ হিসেবে পল্লী উন্নয়ন সংস্থার সহযোগিতায় কেয়ার্ন ইন্ডিয়া ও জেলা প্রশাসন বায়টু ও গিরা গ্রাম সমিতির জন্য এ প্রকল্প হাতে নিয়েছে। যেসব পরিবার মাঠেঘাটে, জলাজঙ্গলে শৌচকার্য না করে নিয়মিত টয়লেট ব্যবহার করবে, সেসব পরিবার প্রতি মাসে আড়াই হাজার রুপি করে পাবে। উদ্বোধনী দিনে আটটি পরিবারের সদস্যদের হাতে অর্থ তুলে দিয়েছে জেলা প্রশাসন। এ দুই গ্রামে বাস করে প্রায় ১৫ হাজার পরিবার। এ দুই জায়গায় সাফল্য পেলে ধীরে ধীরে তা রাজস্থান ও দেশের অন্যান্য গ্রামেও চালু করা হবে।

এ প্রকল্প উদ্বোধন করে সুধীর শর্মা বলেন, এই প্রথম এ ধরনের কোনো উদ্যোগ নেওয়া হলো। এর মাধ্যমে দুই গ্রামের মানুষ সুবিধা পাবে। তাদের মধ্যে নিয়মিত টয়লেট ব্যবহারের প্রবণতা বাড়বে। টয়লেট ব্যবহার করে তারা অর্থও পাবে। সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া।


মন্তব্য