kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


বিজয় দিবসে চালু হবে ডট বাংলা ডোমেইন

বিশেষ প্রতিনিধি   

১৯ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



বিজয় দিবসে চালু হবে ডট বাংলা ডোমেইন

আগামী ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবসে ইন্টারনেট জগতে বাংলাদেশের জাতীয় পরিচয় ও বাংলা ভাষার স্বীকৃতিসূচক ডট বাংলা (.বাংলা) ডোমেইনের যাত্রা শুরু হবে। ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন।

তারানা হালিম জানান, ‘ডট বাংলা চালু করতে খসড়া নীতিমালা এরই মধ্যে প্রণীত হয়েছে। এতে প্রাথমিকভাবে প্রস্তাব রয়েছে, ডোমেইন দুই বছরের জন্য নিতে হবে। এক বছরের ডোমেইনের জন্য ৫০০ এবং বিশেষ শব্দের জন্য লাগবে ১০ হাজার টাকা। এই ফির সঙ্গে সরকার নির্ধারিত ভ্যাট ও অনলাইনে যে মাধ্যমে ফি পরিশোধ করা হবে তার খরচও দিতে হবে।

নবায়ন বা মালিকানা পরিবর্তনের চার্জ এক হাজার ৫০০ টাকা, মেয়াদ শেষ হওয়ার ৩০ ও ৯০ দিনের মধ্যে নবায়নের ক্ষেত্রে জরিমানা এক হাজার টাকা হতে পারে। এ ছাড়া প্রথমবার নিবন্ধনের সময় কমপক্ষে দুই বছরের জন্য এটি নিতে হবে। এককালীন পরিশোধে পাঁচ বছরের জন্য ২০ শতাংশ এবং ১০ বছরের জন্য ৩০ শতাংশ ছাড় পাওয়া যাবে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘ডট বাংলা ডোমেইন সেবা জনগণের কাছে পৌঁছে দিতে কিছুটা সময় দরকার। এর জন্য নীতিমালা এবং মূল্য নির্ধারণ খুব জরুরি। এ জন্য দুই মাসের মধ্যে কাজ শেষ করে ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবসে ডট বাংলা ডোমেইন চালু করা হবে। এর মাধ্যমে বাংলা ভাষা শক্তিশালী হবে। বাংলা ভাষায় কনটেন্ট তৈরিকারীদের ব্যবসার সুযোগ তৈরি হবে। ’

ডট বাংলা ডোমেইনের জন্য স্বতন্ত্র সার্ভার প্রস্তুত করা হয়েছে জানিয়ে তারানা হালিম বলেন, ‘এখন অটোমেশনের কাজ চলছে। মূল্যের খসড়া তৈরি হয়েছে। জনবল গড়ার কাজ চলছে। পরিচালনায় নিয়োজিত বোর্ড অনুমোদনের পর ব্যবহারকারীদের চার্জ জানানো হবে। ’

প্রসঙ্গত বিভিন্ন কারণে দীর্ঘ পাঁচ বছর ঝুলে থাকার পর গতকাল ৫ অক্টোবর ইন্টারনেট করপোরেশন অব অ্যাসাইনড নেমস অ্যান্ড নাম্বারস (আইসিএএনএন) বাংলাদেশকে ডট বাংলা ডোমেইন চালুর অনুমোদন দেয়।

এটি হবে বাংলাদেশের দ্বিতীয় ডোমেইন। ডট বিডি নামে আরেকটি ডোমেইন বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন কম্পানি লিমিটেডের (বিটিসিএল) মাধ্যমে পরিচালিত হয়ে আসছে। এর সক্রিয় নিবন্ধন সংখ্যা ৩৬ হাজার ৫০০।   ইন্টারনেট অ্যাসাইনড নাম্বারস অথরিটির (আইএএনএ) তালিকায় বাংলা ভাষায় লেখা ডোমেইন হিসেবে ডট বাংলা হচ্ছে দ্বিতীয়। ডট ‘ভারত’ নামে আরেকটি বাংলায় লেখা ডোমেইন ওই তালিকায় আগেই স্থান পেয়েছে।  

সংশ্লিষ্টরা জানান, পাঁচ বছর আগে ডট বাংলা ডোমেইনটি নিবন্ধন পেলেও এটি কার্যকর করতে দেরি হওয়ায় এর অধিকার হারাতে বসেছিল বাংলাদেশ। ডোমেইনটি কে নিয়ন্ত্রণ করবে বিটিসিএল না বিটিআরসি—এ প্রশ্নেই কেটে যায় দীর্ঘদিন। ডোমেইনটি ব্যবহারের জন্য প্রয়োজনীয় কাজগুলো সম্পন্ন না করা নিয়ে নানা প্রশ্ন ওঠার পর গত জুনে আবারও এর অধিকার বহাল রাখতে তৎপর হয় ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ। তার আগে গত বছর ১৯ মে তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের সঙ্গে দেখা করে ডট বাংলার গুরুত্ব, অনলাইনে বাংলার অবস্থান ও বাণিজ্যিক বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেছিলেন আইকানের পরিচালক (সিকিউরিটি ও সার্ভেইল্যান্স) জন এল ক্রেইন ও এশিয়া প্যাসিফিক রিজিওনের পার্টনার এনগেইজমেন্টের ম্যানেজার চম্পিকা বিজয়েতুঙ্গা। বাংলাদেশ নেটওয়ার্ক অপারেটরস গ্রুপের (বিডিনগ) ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান সুমন আহমেদ সাবির ওই প্রতিনিধিদলে ছিলেন।

মূলত ওই বৈঠকের পরই ডট বাংলা বাস্তবায়নের উদ্যোগ গতি পায়। মন্ত্রণালয়, বিটিসিএল ও বিটিআরিসির প্রতিনিধিদের নিয়ে একটি কমিটিও গঠন করা হয়। সিদ্ধান্ত হয়, বিটিসিএলই এটি নিয়ন্ত্রণের দায়িত্বে থাকবে। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত ডমেস্টিক নেটওয়ার্কিং কো-অর্ডিনেশন কমিটির (ডিএনসিসি) সভায় বিটিসিএলকে এ দায়িত্ব দেওয়া হয়। এরপর বিটিসিএল ডিএনএস সার্ভার স্থাপনের কাজ শুরু করে। কয়েকটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানও এ বিষয়ে এগিয়ে আসে।


মন্তব্য