kalerkantho


সৈয়দ আশরাফ বললেন

চীনের সঙ্গে সড়ক যোগাযোগ দরকার

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



চীনের সঙ্গে সড়ক যোগাযোগ দরকার

ফাইল ছবি

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন, অনেক আগে চীনের সঙ্গে বাংলাদেশের সড়ক যোগাযোগ ছিল। আবার সেটি চালু হলে শুধু বাংলাদেশ নয়, ভারতও এর সুবিধা পাবে। কুনমিং থেকে কলকাতা পর্যন্ত মোটর শোভাযাত্রাও হয়েছে। সেই যোগাযোগ আবার ফিরিয়ে আনা দরকার।

গতকাল চীনের সমাজতান্ত্রিক বিপ্লবের ৬৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সৈয়দ আশরাফ এসব কথা বলেন। সাম্যবাদী দলের আয়োজনে রাজধানীর বিএমএ মিলনায়তনে আলোচনা সভাটি অনুষ্ঠিত হয়।

প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে চীনের প্রেসিডেন্টের আগমন উপলক্ষে সৈয়দ আশরাফ বলেন, ‘চীনের প্রেসিডেন্ট আমাদের দেশের মাটিতে শিগগিরই পা রাখবেন। এটা দুই দেশের জন্যই আলোচিত ঘটনা। ঐতিহাসিক প্রয়োজনেই আত্মিক সম্পর্ক বৃদ্ধির মাধ্যমে দুই দেশের মধ্যে সম্প্রীতি বাড়বে। ’ সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়ার উদ্দেশ্যে রসিকতার ছলে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘একসময় দাদা একা চীনপন্থী মানুষ ছিলেন, এখন আমরা অনেকেই আছি। ’

সৈয়দ আশরাফ বলেন, ‘চীন ও ভারতবর্ষের সভ্যতার মতোই তাদের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক পুরনো। হাজার বছর আগে জ্ঞানতাপস অতীশ দীপঙ্কর হেঁটে চীনে পৌঁছেছিলেন এ অঞ্চলের সঙ্গে সম্পর্ক বৃদ্ধির জন্য। দুই দেশের উন্নয়নের কথা ভেবে সে সম্পর্ক আজও অব্যাহত আছে। ’

আলোচনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশে চীন দূতাবাসের পলিটিক্যাল কাউন্সিলর ইয়াং জাও হুই বলেন, ‘আমরা বাংলাদেশ সরকারের উন্নয়নের সঙ্গে নানাভাবে সম্পৃক্ত আছি এবং থাকব। আমরা চাই দুই দেশের সুসম্পর্কের মাধ্যমে উন্নত চিন্তার বিকাশ ঘটবে। ’

আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া।


মন্তব্য