kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


সরকারি পাম্পেই জ্বালানি তেলের মান খারাপ

আজ সারা দেশে অভিযান শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



সরকারি পাম্পেই জ্বালানি তেলের মান খারাপ

সারা দেশে ছড়িয়ে থাকা ছয় হাজার জ্বালানি তেলের পাম্প থেকে সরবরাহ করা তেলের মান নিয়ে সুনির্দিষ্ট কোনো তথ্য নেই বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় এবং বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশনের (বিপিসি) হাতে। অভিযোগ রয়েছে, এসব পাম্পে ভেজাল জ্বালানি তেল বিক্রি করা হয়।

ওজনেও কারচুপি করা হয়। মাপে দেওয়া হয় কম। এর বাইরে যেসব পাম্পে ভেজাল জ্বালানি তেল বিক্রি হয় না সেগুলোর তেলের মান খারাপ। এমনই বাস্তবতায় আজ শুক্রবার সারা দেশে শুরু হচ্ছে ভেজাল জ্বালানি তেলবিরোধী অভিযান। গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানীর পরীবাগে সরকারি মালিকানাধীন পাম্পে অভিযানের মাধ্যমে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ এর উদ্বোধন করেছেন।

অভিযানের প্রথম দিনে পরীবাগের সরকারি পাম্পের জ্বালানি তেলের মান খারাপ ধরা পড়ে। তবে এই পাম্পে সঠিক ওজনে তেল সরবরাহ করা হয় কি না তা পরীক্ষা করা হয়নি। অথচ ওজনে কম দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে পাম্পটির বিরুদ্ধে। ওজনে কম দেওয়ার অভিযোগ নিয়ে কয়েক মাস আগে এই পাম্পের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে ক্রেতাদের ব্যাপক হাঙ্গামা হয়।

গতকাল অভিযানের পর এখানে জ্বালানি তেল নিতে আসা একাধিক ক্রেতা প্রশ্ন তোলে, সরকারি পাম্পেই যদি তেলের মান খারাপ হয় তবে বেসরকারি পাম্পের পরিস্থিতি কতটা খারাপ তা আন্দাজ করাও কঠিন।

এদিকে পাম্পগুলোর বিরুদ্ধে অভিযান শুরু হলেও ভেজাল তেলের মূল কারিগর ও গডফাদাররা থেকে যাচ্ছে ধরাছোঁয়ার বাইরে। সরকার ১২টি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে গ্যাসক্ষেত্র থেকে উৎপাদিত কনডেনসেট পরিশোধন করে অকটেন ও পেট্রোল উৎপাদনের অনুমতি দিয়েছে। এ ছাড়া সরকারের তিনটি প্রতিষ্ঠান কনডেনসেট থেকে জ্বালানি তেল পরিশোধন করে থাকে। কনডেনসেট সরাসরি পাম্প মালিকদের কাছে বিক্রির অভিযোগ রয়েছে বেসরকারি একাধিক প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে। এসব প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে এ পর্যন্ত বড় ধরনের কোনো ব্যবস্থাও নেওয়া হয়নি।

গতকাল পরীবাগের পাম্পে অভিযান চলাকালে প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ এটির পরীক্ষাগারসহ বিভিন্ন স্থান পরিদর্শন করেন। এ সময় জ্বালানি বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন। অভিযান সম্পর্কে প্রতিমন্ত্রী বলেন, জ্বালানি তেলের মান পরীক্ষার অভিযান আগামীকাল (আজ শুক্রবার) থেকে সারা দেশে শুরু হবে। এর অংশ হিসেবে আজ সরকারি পাম্পে অভিযান পরিচালিত হলো। এখানকার অকটেনের মান ভালো নয়। তবে পেট্রোলের মান ভালো। আর দেশব্যাপী অভিযান চলাকালে ভেজাল তেল বিক্রি প্রমাণ হলে সংশ্লিষ্ট পাম্পের লাইসেন্স বাতিল করা হবে।

 


মন্তব্য