kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন

‘আসল’ হিলারি নিয়ে বিতর্ক, জরিপে ট্রাম্পের উন্নতি

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



‘আসল’ হিলারি নিয়ে বিতর্ক, জরিপে ট্রাম্পের উন্নতি

যুক্তরাষ্ট্রের আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে এবার প্রধান দুই প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর স্বাস্থ্য ইস্যু গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে। বিশেষ করে নাইন-ইলেভেনে নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন অনুষ্ঠানে ডেমোক্রেটিক প্রার্থী হিলারি ক্লিনটন অসুস্থ হওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে এ আলোচনা জোর পেয়েছে।

গত রবিবার ওই অনুষ্ঠানে হিলারি হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে তাঁর স্বাস্থ্য নিয়ে আবারও প্রশ্ন তুলেছেন প্রতিদ্বন্দ্বী  প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প ও তাঁর সমর্থকরা। ট্রাম্প সমর্থকরা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মেতে উঠেছে হিলারির ‘বডি ডাবল’ (নকল শরীর) ইস্যু নিয়ে। তারা বলছে, অসুস্থ হওয়ার পর মেয়ের বাসা থেকে বের হওয়া হিলারি প্রকৃত হিলারি নন। বিপরীতে ৭০ বছর বয়স্ক ট্রাম্পের স্বাস্থ্য নিয়ে কথা তুলেছে মার্কিন গণমাধ্যম।

অন্যদিকে নতুন দুটি জরিপে এগিয়ে থাকা হিলারির আরো কাছাকাছি চলে এসেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। রয়টার্সের নতুন জরিপে মাত্র ১ শতাংশ এবং নিউ ইয়র্ক টাইসমের নতুন ২ শতাংশ ব্যবধানে হিলারির চেয়ে পিছিয়ে আছেন ট্রাম্প।

নিউ ইয়র্কের টুইন টাওয়ার হামলার বর্ষপূর্তি উপলক্ষে গত রবিবার সকালে ওই স্থানে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে যোগ দেন হিলারি ক্লিনটন। একপর্যায়ে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে হিলারি অনুষ্ঠানস্থল ছেড়ে ম্যানহাটনে তাঁর মেয়ে চেলসির অ্যাপার্টমেন্টে যান। মেয়ের বাসায় প্রায় দুই ঘণ্টা বিশ্রাম নেন হিলারি। পরে তিনি হেঁটে বেরিয়ে আসেন। হাত উঁচিয়ে সবাইকে শুভেচ্ছা জানান এবং বলেন, তিনি এখন ‘অনেকটা ভালো’ বোধ করছেন। পরে হিলারি শিবির থেকে জানানো হয়, তিনি নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত।

কিন্তু মেয়ের অ্যাপার্টমেন্ট থেকে বের হয়ে আসা এই হিলারি ক্লিনটন আসল হিলারি কি না, এ নিয়ে প্রশ্ন তোলে ‘সন্দেহতাত্ত্বিকরা’। তারা দাবি করে প্রকৃতপক্ষে তিনি হিলারি ক্লিনটন ছিলেন না।

‘অলওয়েজ ট্রাম্প’ নামে খোলা একটি টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে টুইট করা হয়েছে—হিলারির তর্জনী তাঁর অনামিকা থেকে বড় নয় (অর্থাৎ ছবিতে বড় দেখাচ্ছে)। এটা হিলারি হতেই পারেন না। ’ কেউ কেউ আগের ও পরের ছবি একসঙ্গে রেখে হিলারির কানের দুলের পার্থক্য তুলে ধরছে। কেউ আবার হিলারির নাকের সঙ্গেও মেয়ের বাড়ি থেকে বেরিয়ে আসা হিলারির পার্থক্য খুঁজে পাচ্ছে। কেউ কেউ আবার বলছে, আগের হিলারির সঙ্গে সেদিনের হিলারিকে শুকনা দেখাচ্ছে—‘এটা অবশ্যই হিলারির বডি ডাবল (অনুরূপা), বয়স কম দেখাচ্ছে, শুকনা মনে হচ্ছে। ’ এই সন্দেহ উসকে একজন লিখেছে, ‘হিলারি বেরিয়ে আসার সময় তাঁর পাহারায় কেউ ছিল না, এটা কখনো হয় না। তিনি একজন প্রেসিডেন্ট প্রার্থী। এটা নিশ্চয়ই অন্য কেউ। ’ তবে এ ধরনের সন্দেহের কথা উড়িয়ে দিচ্ছে হিলারি শিবির। তাঁর স্বাস্থ্য নিয়ে শঙ্কার বিষয়টি নাকচ করেছেন স্বামী সাবেক প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটনও।

প্রচারণায় স্বাস্থ্য ইস্যু : যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের সাম্প্রতিক ইতিহাসে প্রধান দুই প্রার্থীর স্বাস্থ্য সমস্যা নিয়ে উদ্বেগ আর আগে দেখা যায়নি। প্রার্থীরা দেশের প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে পারবেন বা পারবেন না—বিষয়টি এখন ভোটারদের গুরুত্বপূর্ণ আলোচনার বিষয়।

নাইন-ইলেভেন স্মরণ অনুষ্ঠানে অসুস্থ হওয়ার পর হিলারির স্বাস্থ্য নিয়ে তাঁর পক্ষে কথা বলছে তাঁর নির্বাচনী প্রচার শিবির। ইতিমধ্যে জানানো হয়েছে, হিলারি নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়েছেন। তাঁর চিকিৎসক লিসা বারডেন গতকাল বুধবার জানিয়েছেন, অ্যান্টিবায়োটিক সেবন ও বিশ্রাম গ্রহণের কারণে হিলারির শারীরিক অবস্থার উন্নতি হচ্ছে। হিলারির সহযোগীরা জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার থেকে ফের নির্বাচনী প্রচারণায় যোগ দেবেন তিনি।

হিলারির প্রচার শিবির থেকে বলা হয়, শুক্রবার করা চেস্ট স্ক্যানে হিলারির ‘মৃদু, অসংক্রামক ব্যাক্টেরিয়াল নিউমোনিয়া’ ধরা পড়ে। বর্তমানে তিনি তাঁর নিউ ইয়র্কের বাড়িতে বিশ্রামে আছেন। তাঁকে অ্যান্টিবায়োটিক দেওয়া হচ্ছে ও ১০ দিন বিশ্রামে থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। নিজের বিবৃতিতে চিকিৎসক বারদাক বলেন, ‘তিনি সুস্থ হয়ে উঠছেন এবং যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্বপালনের জন্য সক্ষম (শারীরিকভাবে) আছেন। ’

এদিকে রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রচার শিবির থেকে হিলারির স্বাস্থ্য সমস্যা নিয়ে প্রথমে নীরবতা পালন করা হয়। প্রকাশ্যে সমবেদনা জানিয়ে বিবৃতিও দেয়নি তারা। তবে বুধবার রাতে ওহাইও অঙ্গরাজ্যে দেওয়া বক্তব্যে ট্রাম্প নিজেই ইস্যুটি নিয়ে কথা বলেন। হিলারি ক্লিনটন দ্রুত সেরে উঠবেন—এ প্রত্যাশা ব্যক্ত করার মতো সৌজন্য দেখালেও ট্রাম্প বলেন, হিলারি এখন বিছানায় শুয়ে আছেন। সমবেত জনতার উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘বন্ধুরা, আমি জানি না কী হবে। তবে আপনারা কি মনে করেন, হিলারি আপনাদের সামনে এক ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থাকতে পারবেন?’

অন্যদিকে নিউ ইয়র্ক টাইমস এক প্রতিবেদনে বলেছে, ৭০ বছর বয়সী ডোনাল্ড ট্রাম্প তাঁর কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণের জন্য নিয়মিত ওষুধ সেবন করেন। ৬ ফুট ২ ইঞ্চি দীর্ঘ ট্রাম্পের ওজন ২৩৬ পাউন্ড। এনবিসি নিউজ চিকিৎসক ও জির বরাত দিয়ে বলেছে, ট্রাম্পের ওজন স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি। ট্রাম্পের শারীরিক সমস্যার তথ্য প্রকাশ করার জন্য নানা মহল থেকে চাপ আসার মধ্যেই এ প্রতিবেদন প্রকাশ করল পত্রিকাটি।

জরিপে আরো কাছাকাছি ট্রাম্প : নির্বাচনের আট সপ্তাহের কম সময়ে এসে হিলারি ক্লিনটন ও ডোনাল্ড ট্রাম্প শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বিতায় অবতীর্ণ হয়েছেন। গতকাল প্রকাশ করা নিউ ইয়র্ক টাইমস/সিবিএস পরিচালিত নতুন এক জরিপে বলা হয়, ডেমোক্রেটিক প্রার্থী হিলারিকে সমর্থন করছে ৪৬ শতাংশ ভোটার। তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ট্রাম্পকে সমর্থন করছে ৪৪ শতাংশ ভোটার। তবে তরুণ ভোটারদের কাছে ব্যাপক হারে গ্রহণযোগ্যতা পাচ্ছেন না এ দুই বয়সী প্রার্থী। জরিপে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রের ১৮ থেকে ২৯ বছর বয়সী তরুণরা জানিয়েছে, তারা তৃতীয় কোনো প্রার্থীকে ভোট দেবে।

নিউ ইয়র্ক টাইমসের এক দিন আগে গত বুধবার রয়টার্স/ইসপসোস নতুন আরেকটি জরিপের ফল প্রকাশ করে। গত ৮-১২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এক হাজার ৭৬০ জনের ওপর চালানো এই জরিপে বলা হয়, ৪০ শতাংশ ভোটর হিলারিকে সমর্থন করছে। আর ট্রাম্পকে সমর্থন করছে ৩৯ শতাংশ ভোটার। সূত্র : বিবিসি, রয়টার্স, ডেইলি মেইল।


মন্তব্য