kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ঈদযাত্রায় এখন কোটায় টিকিট কেনার ধুম

পার্থ সারথি দাস   

৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



ঈদযাত্রায় এখন কোটায় টিকিট কেনার ধুম

দীর্ঘ সরকারি ছুটির সঙ্গে সমন্বিত ব্যবস্থাপনা জোরদার করায় ঈদযাত্রায় বিঘ্ন কমছে। তীব্র টিকিট সংকট, মহাসড়কে যানবাহনের প্রচণ্ড জট, ভাঙাচোরা মহাসড়কে চরম দুর্ভোগসহ ঈদযাত্রার সেই ভোগান্তিও ক্রমেই কমছে।

সমন্বিত ব্যবস্থাপনা ও নিবিড় তদারকির ফলে তিন বছর ধরে ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন হচ্ছে আগের বছরগুলোর চেয়ে। গত ঈদুল ফিতরের সময় দীর্ঘ হয়েছিল সরকারি ছুটি। এবার ঈদুল আজহার ছুটিতেও যোগ হয়েছে বাড়তি ছুটির আনন্দ। ঈদুল আজহায় নির্ধারিত তিন দিন ছুটির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর নির্বাহী আদেশে আরো এক দিন ছুটি যোগ হয়েছে। ফলে আগের দুই দিনের সাপ্তাহিক ছুটি মিলিয়ে এবার ঈদে টানা ছয় দিন ছুটি পাচ্ছেন সরকারি চাকুরেরা।  

গতকাল সোমবার নির্বাহী আদেশে আগামী ১১ সেপ্টেম্বর ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিষয়টি নিয়ে আলোচনার পর এ-সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। ১২ থেকে ১৪ সেপ্টেম্বরের নির্ধারিত সরকারি ছুটির সঙ্গে ১১ সেপ্টেম্বর রবিবার ছুটি যোগ হয়েছে। তার আগে শুক্র ও শনিবার সাপ্তাহিক ছুটি। ঈদের এই ছয় দিনের ছুটি সামনে রেখে সরকারি চাকুরেদের ঈদযাত্রা শুরু হবে আগামী  বৃহস্পতিবার অফিস করার পর থেকেই।

রাজধানীর বিভিন্ন বাস টার্মিনাল ও রেলস্টেশন সূত্রে জানা গেছে, ঝামেলা এড়াতে আগাম টিকিটে ঈদযাত্রা শুরু হবে বুধবার থেকে। এর পর থেকেই চাপ বাড়তে থাকবে। সবচেয়ে বেশি চাপ থাকবে ৯, ১০, ১১ সেপ্টেম্বর।

গতকাল বাড়তি ছুটির বার্তা পাওয়ার পর বিকেল থেকেই রাজধানীর বাস টার্মিনাল, রেলস্টেশন, সদরঘাট, বিভিন্ন বিমান এয়ারলাইনসের টিকিট বিক্রয়কেন্দ্রে টিকিটপ্রার্থীদের দৌড়ঝাঁপ শুরু হয়েছে। ট্রেনে ঈদযাত্রার আগাম টিকিট বিক্রি শেষ হয়েছে গত শুক্রবার। তবে রেল ভবন ও রেলস্টেশনে তদবির শুরু হয়েছে কোটার টিকিট কিনতে।

জানা গেছে, বিভিন্ন কম্পানির বাসেও অলিখিত কোটায় সংরক্ষিত বাসের টিকিট পেতে বিভিন্ন কাউন্টারে তদবির শুরু হয়েছে। সংসদ সদস্য, প্রশাসনের কর্মকর্তা থেকে শুরু বিভিন্ন শ্রেণির প্রভাবশালীদের জন্য এসব টিকিট বিক্রি হচ্ছে। ট্রেনের টিকিটের ক্ষেত্রেও শুরু হয়েছে এই তদবির। কারণ ট্রেনে ভিআইপি, রেল কর্মচারী, মোবাইলসহ বিভিন্ন কোটায় ৩৮ শতাংশ টিকিটই সংরক্ষণ করে বিক্রি করা হয়।

ঢাকা-চট্টগ্রাম, ঢাকা-খুলনা, ঢাকা-দিনাজপুর, ঢাকা-রাজশাহী, ঢাকা-সিলেটসহ বিভিন্ন রুটে গত দুই বছরে আন্তনগর ট্রেনে আসন বেড়েছে প্রায় ছয় হাজার। ঈদযাত্রায় কমলাপুর রেলস্টেশন থেকে আগে প্রতিদিন ১৭ হাজার টিকিট বিক্রি করা হতো। এবার প্রতিদিন বিক্রি করা হয়েছে ৩১টি ট্রেনের প্রায় ২৩ হাজার টিকিট। ঢাকা-খুলনা রেলপথে দুটি আন্তনগর ট্রেন চিত্রা ও সুন্দরবনে নতুন কোচ যোগ করা হয়েছে। ঢাকা-সিলেট রুটের পারাবত, ঢাকা-দেওয়ানগঞ্জ রুটের তিস্তা ট্রেনে নতুন কোচ লাগানো হয়েছে গত শুক্রবার।

সদরঘাট সূত্রে জানা গেছে, সদরঘাটে ঢাকা-বরিশালসহ বিভিন্ন রুটে লঞ্চের কেবিনের টিকিট বিক্রি শেষ হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। তা সত্ত্বেও তদবির শুরু হয়েছে কেবিনের টিকিট পেতে। ঢাকা-বরিশাল রুটে প্রতিদিন ৭০টি লঞ্চ চলাচল করবে। তবে এসব লঞ্চের ট্রিপ বাড়ানো হবে।

বিভিন্ন বাস টার্মিনাল সূত্রে জানা গেছে, সড়কপথে ঈদের আগের তিন দিনেই ১৫ থেকে ২০ লাখ মানুষ ঢাকা ছাড়ে। তবে এবার ছুটি বেশি হওয়ায় এই চাপ কমবে। বাংলাদেশ বাস-ট্রাক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সহসভাপতি রমেশ চন্দ্র ঘোষ কালের কণ্ঠকে বলেন, সরকারি ও সাপ্তাহিক ছুটি বেশি হওয়ায় অনুরোধে শেষ পর্যন্ত কিছু টিকিট দিতে হয়।  

হানিফ পরিবহনের কাউন্টারে অলিখিত কোটার টিকিট পেতে গত রাতে গাবতলী বাস টার্মিনালে যান সরকারি চাকুরে শরীফুল ইসলাম। কাউন্টারে কর্মরত এক ঘনিষ্ঠজনকে ফোন দিয়ে টিকিট দেওয়ার অনুরোধ করলে কাউন্টার থেকে ওই ঘনিষ্ঠজন নিশ্চয়তা দেওয়ার পর শরীফ টার্মিনালে গিয়ে টিকিট নিয়ে আসেন।  

১১ সেপ্টেম্বর রবিবার সরকারি ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। ১২ থেকে ১৪ সেপ্টেম্বরের নির্ধারিত সরকারি ছুটির সঙ্গে ১১ সেপ্টেম্বরের ছুটি যোগ হয়েছে। রবিবার ছুটির আগে শুক্র ও শনিবার সাপ্তাহিক ছুটি। ঈদের এই ছয় দিনের ছুটি সামনে রেখে সরকারি চাকুরেদের ঈদযাত্রা শুরু হবে আগামী বৃহস্পতিবার অফিস করার পর থেকেই। রাজধানীর বিভিন্ন বাস টার্মিনাল ও রেলস্টেশন সূত্রে জানা গেছে, ঝামেলা এড়াতে আগাম টিকিটে ঈদযাত্রা শুরু হচ্ছে বুধবার থেকে। তার পর থেকেই চাপ বাড়তে থাকবে। সবচেয়ে বেশি চাপ থাকবে ৯, ১০, ১১ সেপ্টেম্বর।

গত ঈদুল ফিতরের সময়ও নির্বাহী আদেশে এক দিন ছুটি ঘোষণা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী। এতে ওই ঈদে ছুটি দাঁড়িয়েছিল টানা ৯ দিন। বিশেষজ্ঞ ও সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ঈদের সরকারি ছুটি দীর্ঘ না হলে মাত্র কয়েক দিনে লাখ লাখ যাত্রী পরিবহনের মতো ব্যবস্থাপনা গড়ে ওঠেনি। সড়ক, রেল, নৌ ও আকাশপথে সমন্বিত যাত্রী পরিবহনের ব্যবস্থাপনা না থাকায় একই দিনে বেশি যাত্রী পরিবহনের ক্ষেত্রে বেশি ধকল যায় মহাসড়কে। কারণ মহাসড়কে ৮৮ শতাংশ যাত্রী পরিবহন করা হয়ে থাকে। সরকারি ছুটি দীর্ঘ হওয়ার পাশাপাশি তৈরি পোশাক কারখানাগুলোতে ধাপে ধাপে ছুটির রীতিও চালু হয়েছে। ফলে ঈদযাত্রায় আগের সেই চাপ থাকছে না কয়েক বছর ধরে। ঈদে যাত্রীর চাপ যাতে একসঙ্গে না পড়ে সে জন্য তৈরি পোশাক কারখানাগুলো ভিন্ন ভিন্ন দিনে ছুটি দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গাজীপুর জেলা থেকেই ঈদে পাবনা, সিরাজগঞ্জ, কুড়িগ্রামসহ উত্তরের বিভিন্ন জেলায় যায় কমপক্ষে ৪০ লাখ তৈরি পোশাককর্মী। তাদের বড় একটি অংশ সড়কপথে বাড়ি যায়। এবার ধাপে ধাপে ছুটি দেওয়া হলে এবং ঈদের বোনাস সময়মতো দেওয়া হলে মহাসড়কে একসঙ্গে পরিবহনের চাপ পড়বে না।

সড়ক-মহাসড়কের অবস্থা আগের চেয়ে ভালো। সেই সঙ্গে যোগ হয়েছে নতুন দুটি চার লেন মহাসড়ক। সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের এইচডিএম সার্কেলের সর্বশেষ প্রতিবেদন অনুসারে, অধিদপ্তরের ৪৩ শতাংশ সড়ক-মহাসড়ক ভাঙাচোরা। ৩৭ শতাংশ মোটামুটি অবস্থায় আছে। সবচেয়ে ভালো অবস্থায় আছে ১৯ শতাংশ সড়ক-মহাসড়ক। এইচডিএম সার্কেলের ২০১৪ সালের মার্চের প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল, ভাঙাচোরা ছিল মোট সড়ক-মহাসড়কের ৪২ শতাংশ। ২০১২ সালে ভাঙাচোরা সড়ক-মহাসড়ক ছিল ৩৮ শতাংশ। ২০১১ সালে মহাসড়কে নেমেছিল বিপর্যয়।

গত ঈদুল ফিতরের মতো এবার আসন্ন ঈদযাত্রায় ঢাকা-চট্টগ্রাম, জয়দেবপুর-ময়মনসিংহ নতুন চার লেন ধরে যাত্রীরা বাড়ি যেতে পারবে। তবে চার লেনের কাজ চলা এবং আরিচা-দৌলতদিয়া ঘাটে ফেরি কমে যাওয়ার কারণে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে বেশি চাপ পড়বে বলে আশঙ্কা করছে সংশ্লিষ্টরা। গাবতলী বাস টার্মিনাল থেকে দক্ষিণের বিভিন্ন জেলার যাত্রীরাই মূলত শ্যামলী, হানিফ, ঈগল, সাকুরাসহ বিভিন্ন পরিবহনের বাসে বাড়ি যাবে। ভিড় ও ছুটি নিয়ে দোটানার কারণে আগাম টিকিট কিনতে পারেননি সরকারি চাকুরে মাহবুবের রহমান। সরকারি ছুটি এক দিন বেশি পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পর সাকুরা পরিবহনের বাসে পটুয়াখালী যাওয়ার জন্য চারটি টিকিট কিনতে কাউন্টারে যোগাযোগ করেন তিনি। কাউন্টারে বিশেষ বিক্রয় কর্মকর্তার মাধ্যমে চারটি টিকিট পেয়েও যান গত রাতে। জিআর পরিবহনে ঢাকা থেকে কুষ্টিয়া হয়ে মেহেরপুর যেতে ২৪ আগস্ট টিকিট কিনেছিলেন আল আজাদ। সরকারি ছুটি এক দিন বেড়ে যাওয়ায় টিকিট পরিবর্তন করে এক দিন আগের টিকিট নিয়েছেন তিনি। তিনি যাবেন ৯ সেপ্টেম্বর।

 


মন্তব্য