kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৯ জানুয়ারি ২০১৭ । ৬ মাঘ ১৪২৩। ২০ রবিউস সানি ১৪৩৮।


বিমানকে ‘মেঘদূত’ বানাতে পর্ষদ পুনর্গঠন

ইনামুল বারী নতুন চেয়ারম্যান

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৩০ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



বিমানকে ‘মেঘদূত’ বানাতে পর্ষদ পুনর্গঠন

ইনামুল বারী

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের পরিচালনা পর্ষদ (বোর্ড) পুনর্গঠন করা হয়েছে। নতুন পর্ষদের চেয়ারম্যান করা হয়েছে বিমানবাহিনীর সাবেক প্রধান এয়ার মার্শাল মোহাম্মদ ইনামুল বারীকে। তাঁর পিআরএল (অবসরোত্তর ছুটি) বাতিল করে এ পদে নিয়োগ দেওয়া  হয়েছে। তিনি জামাল উদ্দিন আহম্মেদের স্থলাভিষিক্ত হলেন। গতকাল মঙ্গলবার সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ-সংক্রান্ত সারসংক্ষেপ অনুমোদন করলে বিকেলেই প্রজ্ঞাপন জারি করে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়।

আগের পর্ষদ ১১ সদস্যের হলেও এবার পর্ষদ গঠন করা হয়েছে ১৩ সদস্যের। পর্ষদে সবচেয়ে বড় চমক হচ্ছে সাবেক শিক্ষাসচিব নজরুল ইসলাম খানের (এন আই খান) অন্তর্ভুক্তি। তিনি শেষ মুহৃর্তে তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হয়েছেন। বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় থেকে পর্ষদ গঠনের জন্য যাঁদের নাম প্রস্তাব করা হয়েছিল তার মধ্যে ব্যবসায়ীদের সংগঠন এফবিসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি কাজী আকরাম উদ্দিন আহমেদের নাম ছিল। কিন্তু শেষ মুহূর্তে তাঁর নাম বাদ দিয়ে সেখানে নজরুল ইসলাম খানের নাম অন্তর্ভুক্ত করা হয়। এ ছাড়া সাবেক অতিরিক্ত সচিব তাপস কুমার রায়, সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার তানজিব উল আলম, বিজিএমইএর সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান, ইমার্জিং রিসোর্সেস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নূর-ই-খোদা আবদুল মবিনকে পর্ষদের পরিচালক করা হয়েছে। পদাধিকারবলে পর্ষদের সদস্য হিসেবে আছেন অর্থ বিভাগের সিনিয়র সচিব, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় সচিব, বিমানবাহিনীর সহকারী প্রধান (অপারেশন অ্যান্ড ট্রেনিং), সেনাবাহিনীর ইঞ্জিনিয়ার ইন চিফ, বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান এবং বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও।  

বোর্ড পুনর্গঠনের পর বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন সাংবাদিকদের বলেন, নতুন বোর্ড বিমানের জন্য এক ‘রাঙা প্রভাত’ নিয়ে আসবে। বিমান বহির্বিশ্বে বাংলাদেশের সুনাম ও মর্যাদার প্রতীক হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হবে। বিমান হবে বাংলাদেশের ‘মেঘদূত’।


মন্তব্য