kalerkantho


অনলাইনে হজযাত্রীদের প্রাক-নিবন্ধনে ধীরগতি

মোশতাক আহমদ   

২৭ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



অনলাইনে হজযাত্রীদের প্রাক-নিবন্ধনে ধীরগতি

রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার রাশেদুল ইসলাম এবার হজের প্রাক-নিবন্ধনের জন্য টাকা জমা দিয়েছেন বেসরকারি হজ এজেন্সিতে। কিন্তু তাঁর জাতীয় পরিচয়পত্রে বাবার নাম লেখা রয়েছে আবি সুলায়মান, প্রকৃতপক্ষে তাঁর বাবার নাম হলো সাবেরুল ইসলাম। এই ভুল সংশোধনের জন্য ধর্ম মন্ত্রণালয়ের আইটি সার্ভার থেকে তথ্য পাঠানো হয়েছে নির্বাচন কমিশনের সার্ভারে। গত বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ওই ভুল সংশোধন হয়ে ফিরে আসেনি। তাই এই হজযাত্রীর অনলাইনে প্রাক-নিবন্ধন সম্পন্ন হয়নি। এ ছাড়া অনেক মানুষ একসঙ্গে সার্ভারে প্রবেশ করতে চাওয়ায় ধর্ম মন্ত্রণালয়ের আইটি বিভাগের অনলাইনটির গতি শ্লথ হয়ে যাচ্ছে। বিষয়টি স্বীকার করে হজ অফিস কর্তৃপক্ষ বলেছে, একসঙ্গে বেশি মানুষ হিট করায় সার্ভার স্লো হয়েছে। তবে ধীরে ধীরে তা স্বাভাবিক হয়ে যাবে। সমস্যা সমাধানে আইটি কর্মকর্তারা রাতভর কাজ করছেন।

এ বছর হজে যেতে আগ্রহীদের জনপ্রতি ৩০ হাজার টাকা জমা দিয়ে প্রাক-নিবন্ধন কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়েছে গত ২০ মার্চ। তবে হজ এজেন্সির সঙ্গে চুক্তির কিছু আনুষ্ঠানিকতা তখনো বাকি থাকায় প্রাক-নিবন্ধন কার্যক্রম পুরোদমে শুরু হয়েছে গত ২৩ মার্চ। এই নিবন্ধনের ক্ষেত্রে জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্য বাধ্যতামূলক হওয়ায় অনলাইনে নিবন্ধনের গতি ধীর বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। যাঁদের জাতীয় পরিচয়পত্রে ভুল আছে তাঁদের বিষয়ে ভুল সংশোধনের জন্য ধর্ম মন্ত্রণালয় থেকে নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের অধীন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সার্ভারে পাঠানো হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার পর্যন্ত দুই দিনে ৫৫ হাজার ৮৩৭ জনের তথ্য সংশোধনের জন্য পাঠানো হয়েছে এনআইডি সার্ভারে। এসব তথ্য সংশোধন হয়ে ফেরত এলে আগ্রহীরা নিবন্ধনের বাকি প্রক্রিয়া শেষ করতে পারবেন।

দীর্ঘদিন অপেক্ষার পর প্রাক-নিবন্ধন কার্যক্রম শুরু হওয়ায় একসঙ্গে বেশি হিট হচ্ছে অনলাইনে। এতে নিবন্ধন সার্ভারে কাজ করতে ভোগান্তি সৃষ্টি হয় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রথম দিনে সরকারি ব্যবস্থাপনার ২৮ জন এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনার ৩০০ হজযাত্রী প্রাক-নিবন্ধন সম্পন্ন করেছেন।

মদীনা এয়ার ট্রাভেলসের মালিক হাজি ফজলুর রহমান কালের কণ্ঠকে বলেন, তাঁর এজেন্সি থেকে এবার ২২৩ জন হজযাত্রী অনলাইনে নিবন্ধনের জন্য প্রস্তুত রয়েছেন। কিন্তু এক দিনে মাত্র ছয়জন নিবন্ধন করতে পেরেছেন। আরেক এজেন্সি এমএম ট্রাভেলসের মালিক জানান, তাঁর এজেন্সি থেকেও এবার দুই শতাধিক হজযাত্রী নিবন্ধিত হবেন। কিন্তু দুই দিনে তাঁর এজন্সিরও মাত্র ১২ জন নিবন্ধিত হয়েছেন।

এদিকে হজের প্রাক-নিবন্ধনের বিষয়ে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের আইটি বিভাগ থেকে জানানো হয়েছে, গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজযাত্রীর ডাটা এন্ট্রি হয়েছে ২১১ জনের, একই ব্যবস্থাপনায় প্রাক-নিবন্ধিত হজযাত্রীর সংখ্যা এক হাজার ১৫৪। বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজযাত্রীর ডাটা এন্ট্রির এজেন্সি সংখ্যা ৭৩২। বেসরকারি হজযাত্রীর ডাটা এন্ট্রির সংখ্যা ১৫ হাজার ৩৫১ জন, বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় প্রাক-নিবন্ধিত হজযাত্রীর সংখ্যা পাঁচ হাজার ২৮৪, ব্যাংকে পেমেন্ট অনুমোদনের অপেক্ষায় ২৫৫, এনআইডি সার্ভারে প্রেরিত হজযাত্রীর সংখ্যা ৫৫ হাজার ৮৩৭। আর এনআইডি সার্ভার থেকে সফলভাবে যাচাই হয়ে এসেছে ২৩ হাজার ১৫১ জনের তথ্য।

এদিকে হজ অফিসের এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, জাতীয় হজ ও ওমরাহ নীতিমালা ২০১৬-এর আলোকে সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এ বছর সরকারি ব্যবস্থাপনায় ১০ হাজার জনের মধ্যে গাইড ও রাষ্ট্রীয় খরচে হজযাত্রী (৫০০ জনের জন্য সংরক্ষিত) ব্যতীত সাধারণ হজযাত্রী ৯ হাজার ৫০০ জন এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৯১ হাজার ৭৫৮ জনের মধ্যে গাইড ও মোনাজ্জেম (তিন হাজার ৫৫৮ জন সংরক্ষিত) ব্যতীত সাধারণ হজযাত্রী ৮৮ হাজার ২০০ জন হবেন। সরকারি গাইড ও রাষ্ট্রীয় খরচে হজযাত্রীর জন্য সংরক্ষিত ৫০০ হজযাত্রী এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনার গাইড ও মোনাজ্জেমের জন্য সংরক্ষিত তিন হাজার ৫৫৮ হজযাত্রীর তথ্য পরে সরকারের সিদ্ধান্ত মোতাবেক প্রাক-নিবন্ধন সিস্টেমে ডাটা এন্ট্রি করার জন্য প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেওয়া হবে।


মন্তব্য