kalerkantho


মঠবাড়িয়ায় নির্বাচনে গুলি

গণগ্রেপ্তার আতঙ্কে গ্রামবাসী, তদন্তদল ঘটনাস্থলে

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, পিরোজপুর   

২৬ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



গণগ্রেপ্তার আতঙ্কে গ্রামবাসী, তদন্তদল ঘটনাস্থলে

ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) প্রথম ধাপের ভোটের দিন মঙ্গলবার পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় সাফা ডিগ্রি কলেজ কেন্দ্রে হামলা ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর গুলিতে পাঁচজন নিহতের ঘটনা তদন্তে পৃথক তিনটি দল কাজ শুরু করেছে। এ ঘটনায় এক হাজার ৩০০ অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিকে আসামি করে পুলিশের মামলার পর অন্তত পাঁচ গ্রামের মানুষের মধ্যে হয়রানি ও গ্রেপ্তার আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

স্থানীয়রা জানিয়েছে, ধানীসাফা, বুড়িরচর, ফুলঝুড়ি, তেঁতুলবাড়িয়া ও আমুরবুনিয়া গ্রামের পুরুষদের অনেকেই আতঙ্কে এলাকা ছেড়ে অন্যত্র চলে গেছে। আবার যারা এলাকায় রয়েছে, তারাও ভীতসন্ত্রস্ত অবস্থায় রয়েছে। তবে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মঠবাড়িয়া থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মো. নাসির উদ্দিন জানান, উদ্ভূত পরিস্থিতির জন্য জড়িত ব্যক্তিদের শনাক্তের পরই কেবল তাদের আইনের আওতায় আনা হবে। এমনকি ঘটনার দিন সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রে নির্বাচনী দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

গতকাল শুক্রবার দুপুরে জেলা প্রশাসকের গঠিত তদন্ত কমিটির আহ্বায়ক অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মানিক রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুব্রত কান্তি, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এস এম ফরিদ উদ্দিন ও ওসি খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তাঁরা এলাকার বেশ কিছু মানুষের সঙ্গে কথা বলেন।

নিহতদের জন্য ৬৩ মসজিদে দোয়া : ভোটের দিন গুলিতে নিহতদের জন্য গতকাল ৬৩টি মসজিদে দোয়া করা হয়েছে। স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা শাহজাহান হাওলাদারের উদ্যোগে ধানীসাফা ও তুষখালী ইউনিয়নে এ দোয়ার আয়োজন করা হয়।


মন্তব্য