kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৯ জানুয়ারি ২০১৭ । ৬ মাঘ ১৪২৩। ২০ রবিউস সানি ১৪৩৮।


খাগড়াছড়িতে মা ও পাঁচ মাসের শিশুকে গলা টিপে হত্যা

স্বামী শ্বশুরসহ আটক ৪

দীঘিনালা (খাগড়াছড়ি) প্রতিনিধি   

২৪ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



খাগড়াছড়ির গুইমারা উপজেলায় মজিদা আক্তার (২৬) নামে এক গৃহবধূ ও তাঁর শিশুপুত্র রিদোয়ানকে (৫ মাস) গলা টিপে হত্যা করা হয়েছে। গত মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার বড়পিলাক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহতের পরিবারের অভিযোগ, যৌতুকের দাবিতে এ হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়েছে।

হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে গৃহবধূর স্বামী সাবের আলী (২৬), শ্বশুর মাহবুব আলম (৫৫), শাশুড়ি রেনুয়ারা বেগম (৪০) ও দেবর মো শাহজাহানকে (১৯) আটক করে পুলিশে দিয়েছে স্থানীয় জনতা।

খাগড়াছড়ির সহকারী পুলিশ সুপার মো. কাজী হুমায়ন রশিদ স্থানীয় লোকজনের বরাত দিয়ে জানান, রাতে খাবার খেয়ে সবাই ঘুমাতে যায়। কিছুক্ষণ পর সাবের আলী ঘর থেকে বের হয়ে স্ত্রী ও সন্তানকে নিজে হত্যা করেছেন বলে অন্যদের কাছে বলতে থাকেন। খবর পেয়ে প্রতিবেশীরা গিয়ে ওই পরিবারের সবাইকে আটক করে রেখে পুলিশে খবর দেয়।

নিহতের বাবা সাহাব উদ্দিন কান্নাজড়িত কণ্ঠে জানান, মেয়েকে বিয়ে দিয়েছিলেন তিন বছর আগে। পাঁচ মাস বয়সী রিদোয়ানই ছিল মেয়ে মজিদার একমাত্র সন্তান। বিয়ের পর থেকেই তাঁর মেয়ের ওপর নির্যাতন চালাত স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন। সর্বশেষ এক লাখ টাকা দাবি করে। টাকা না দিলে পরিণাম খারাপ হবে বলে তারা হুমকি দিয়েছিল। কিন্তু দরিদ্র হওয়ায় যৌতুক দিতে পারেননি তিনি।

গুইমারা থানার ওসি মো. মোস্তাফিজুর রহমান জানান, স্ত্রী ও শিশুসন্তানকে গলা টিপে হত্যার বিষয়টি প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সাবের আলী স্বীকার করেছেন। এ ঘটনায় নিহতের বাবা সাহাব উদ্দিন বাদী হয়ে আটককৃত চারজনকে আসামি করে মামলা করেছেন।


মন্তব্য