kalerkantho


হামলা সংঘর্ষ হুমকি চলছেই আহত ৪৬

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৪ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



হামলা সংঘর্ষ হুমকি চলছেই আহত ৪৬

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন সামনে রেখে ব্রাহ্মণবাড়িয়া, ঝালকাঠি, বগুড়া, কক্সবাজার, মুন্সীগঞ্জ ও বগুড়ায় হামলা, অগ্নিসংযোগ, সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে আহত হয়েছে ৪৬ জন। নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াতে একাধিক প্রার্থী হুমকি পেয়েছেন বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে। কক্সবাজারের টেকনাফে প্রতিদ্বন্দ্বী সদস্য (মেম্বার) প্রার্থী ও পুলিশের ওপর ইয়াবা ব্যবসায়ী সদস্য প্রার্থীদের একাধিক হামলার ঘটনা ঘটেছে। আমাদের স্থানীয় নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো সংবাদ :

ব্রাহ্মণবাড়িয়া : জেলার নবীনগর উপজেলার বীরগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াতে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. জহির রায়হানের মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে হত্যার হুমকি দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল সোয়া ১০টার দিকে পৌর এলাকার ফুলবাড়িয়ায় তাঁর ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানে মুখোশধারী ছয় যুবক এ হুমকি দিয়ে যায় বলে তিনি অভিযোগ করেন। এ ছাড়া জেলার আশুগঞ্জের আড়াইসিধা ইউনিয়নের ভূঁইয়াপাড়ায় শনিবার রাতে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. সেলিম মিয়ার নির্বাচনী অফিস পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। সেলিমের অভিযোগ, তাঁর প্রতিপক্ষের লোকজন এ ঘটনা ঘটিয়েছে।

ঝালকাঠি : নলছিটি উপজেলার সুবিদপুর ইউনিয়নের তাতলা বাজারে গতকাল সকালে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ও দলের বিদ্রোহী প্রার্থীর কর্মীদের বিরুদ্ধে পাল্টাপাল্টি মহড়া দেওয়ার সময় পুলিশ অভিযান চালিয়ে ২৪টি হকিস্টিক উদ্ধার করে। এ ছাড়া উপজেলার ভরতকাঠি এলাকা থেকে পুলিশ আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীর দুই কর্মীকে আটক করে। কাঁঠালিয়া উপজেলার পাটিখালঘাটা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী শহিদুল ইসলাম হৃদয় গতকাল সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করেন, আওয়ামী লীগের প্রার্থী শিশির দাস তাঁকে হামলা ও মামলার হুমকি দিয়েছেন। নলছিটি উপজেলার মোল্লারহাট ইউনিয়নে বিএনপির চেয়ারম্যান প্রার্থী আবদুস ছালামের ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে তালা ঝুলিয়ে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

বগুড়া : শিবগঞ্জ উপজেলার আটমুল ইউনিয়নে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থক সাখাওয়াত হোসেনের মুদি দোকানে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা। রবিবার দুপুরে বড়বেলঘরিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এতে দোকানের লক্ষাধিক টাকার পণ্য ভস্মীভূত হয়।

কক্সবাজার : টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য পদপ্রার্থী দিদারুল ইসলাম জিন্নাহ নিজ দোকানের সামনে বেধড়ক পিটুনি খেয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তাঁর অভিযোগ, গতকাল দুপুরে আলী খালী তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী জামাল হোসেন ওরফে ইয়াবা জামাল সঙ্গীদের নিয়ে কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করে। এর দুই দিন আগে শুক্রবার মধ্যরাতে একই ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের লেদা গ্রামে পুলিশের ওপর হামলা চালিয়ে হাতকড়াসহ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত শীর্ষ ইয়াবা ব্যবসায়ী ও মেম্বার পদপ্রার্থী নুরুল হুদাকে ছিনিয়ে নিয়ে যায় তার ইয়াবা সিন্ডিকেটের সদস্যরা। এতে একজন এএসআইসহ ছয়জন আহত হন। এ ঘটনায় পুলিশ পরে একজনকে গ্রেপ্তার করলেও অজ্ঞাত কারণে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

ভোলা : প্রথম দফায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ভোলায় সহিংসতা ক্রমেই বাড়ছে। সহিংসতায় দুই দিনে আহত হয়েছে ২৫ জন। এ ঘটনায় দুই প্রার্থী তাঁদের প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী হুমায়ন গোলদার ও তাঁর কর্মী-সমর্থকদের দায়ী করে রিটার্নিং অফিসার ও থানায় অভিযোগ দিয়েছেন। হামলায় অন্তত ১০ জন আহত হন।

মুন্সীগঞ্জ : সিরাজদিখান উপজেলার কোলা ইউনিয়নের নন্দনকোনা চৌরাস্তায় আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী লিয়াকত আলী ও দলের বিদ্রোহী প্রার্থী নাছির চৌধুরী সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত ২০ জন আহত হয়। গতকাল সন্ধ্যায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কর্মসভা চলাকালে এ সংঘর্ষ হয়।


মন্তব্য