kalerkantho

মঙ্গলবার। ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ । ৯ ফাল্গুন ১৪২৩। ২৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮।


জমির বিরোধে শিশুর পেটে ছুরিকাঘাত

ঈশ্বরগঞ্জ প্রতিনিধি   

১৪ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



জমির বিরোধে শিশুর পেটে ছুরিকাঘাত

সম্পত্তির বিরোধে ময়মনসিংহের নান্দাইলে গতকাল রবিবার এক শিশুকে ছুরিকাঘাত করা হয়েছে। বীথি নামের ১৭ মাস বয়সী শিশুটি ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিত্সাধীন। পেটের এপাশ-ওপাশ ছুরিবিদ্ধ অবস্থায় গতকাল দুপুরে শিশুটিকে হাসপাতালে নেওয়া হলে প্রায় দুই ঘণ্টার অপারেশনে ধারালো ছুরিটি বের করা হয়। এর পরও শিশুর শারীরিক অবস্থা সংকটাপন্ন বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানিয়েছে, নান্দাইল পৌরসভার দক্ষিণ চণ্ডীপাশা এলাকায় সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ ছিল দীন ইসলাম ও তাঁর ফুপাতো ভাই শাহজাহানের। তাঁদের পারিবারিক বিরোধেই শিশুকে ছুরিকাঘাতের ঘটনা ঘটেছে। ছুরিবিদ্ধ বীথিকে নান্দাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে চিকিৎসকরা তাৎক্ষণিক ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেন। সেখানে দুপুরে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে ছুরি বের করা হয়।

শিশুর দাদি জাহেরা খাতুন (৬৫) বলেন, ‘দীন ইসলাম পৈতৃক জমিতে ঘর তুলছিল। সকাল ১০টার দিকে শাহজাহানসহ কয়েকজন তাতে বাধা দেয়। শাহজাহান ধারালো ছুরি নিয়ে ধাওয়া করলে দীন ইসলাম পালিয়ে যায়। এ সময় ঘরের কাছেই চাচাতো বোন শরীফার কোলে ছিল দীন ইসলামের মেয়ে বীথি। তখন শিশু বীথির পেটেই ছুরি চালিয়ে দেয় শাহজাহান। ’

এদিকে অভিযুক্ত শাহজাহান নিজেকে নির্দোষ দাবি করে বলেন, ‘আমাকে ফাঁসাতে দীন ইসলামই সন্তানকে ছুরি মেরেছে। এ ঘটনায় আমি জড়িত না। ’

নান্দাইল মডেল থানার ওসি মো. আতাউর রহমান জানান, জমির মালিকানা নিয়ে বিরোধে দীন ইসলামকে আদালতে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছিল। তিনি তা করেননি। ঘটনার পর জমির ওপরে থাকা মালামাল জব্দ করা হয়েছে। অভিযুক্তদের খোঁজে অভিযান চলছে।


মন্তব্য