kalerkantho

সোমবার । ১৬ জানুয়ারি ২০১৭ । ৩ মাঘ ১৪২৩। ১৭ রবিউস সানি ১৪৩৮।


শিশু আবদুল্লাহ হত্যায় ছয়জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট

আদালত প্রতিবেদক   

১০ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



শিশু আবদুল্লাহ হত্যায় ছয়জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট

ঢাকার কেরানীগঞ্জে স্কুল ছাত্র আবদুল্লাহকে (১১) হত্যার অভিযোগে পুলিশ আদালতে চার্জশিট দাখিল করেছে। গতকাল বুধবার ঢাকার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আফরোজা খাতুনের আদালতে দাখিল করা চার্জশিটে আসামি করা হয়েছে ছয়জনকে। তারা হলো  খোরশেদ আলম, মেহেদী হাসান শামীম, মিতু আক্তার, কায়কোবাদ, নাসিমা বেগম ও জহিরুল ইসলাম। শেষ দুজন আসামি পলাতক রয়েছে। শিশু হত্যার আলোচিত এ মামলাটি বিচারের জন্য শিগগিরই ঢাকার ১ নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে পাঠানো হবে বলে জানা গেছে।

কেরানীগঞ্জের পশ্চিম মুগারচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র আবদুল্লাহকে গত ২৯ জানুয়ারি অপহরণ করা হয়। মুক্তিপণ বাবদ দাবি করা হয়েছিল সাড়ে পাঁচ লাখ টাকা। স্বজনরা দুই লাখ টাকা দেওয়ার পরও মুক্তি মেলেনি শিশুর। আবদুল্লাহর বাবা কুয়েতপ্রবাসী বাদল মিয়া ঘটনার সংবাদ পেয়ে দ্রুত দেশে আসেন। কিন্তু সন্তানকে জীবিত ফেরত পাননি তিনি। প্রতিবেশী ও আত্মীয় মোতাহার হোসেনের বাড়ির ছাদে ড্রামে ভরা অবস্থায় মেলে শিশু আবদুল্লাহর লাশ।

অপহরণ ও হত্যার এ ঘটনায় ৩১ জানুয়ারি আবদুল্লাহর নানা মারফত আলী বাদী হয়ে কেরানীগঞ্জ থানায় মামলা করেন। তদন্তশেষে কেরানীগঞ্জ মডেল থানার এসআই শফিকুল ইসলাম গতকাল আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। লাশ উদ্ধারের সময় গ্রেপ্তার করা চার আসামি ইতিমধ্যে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। আর প্রধান অভিযুক্ত মোতাহার হোসেন ৮ ফেব্রুয়ারি র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়। চার্জশিটে এ মামলার বাদীসহ মোট ৩০ জনকে সাক্ষী করা হয়েছে। গ্রেপ্তার করা আসামিদের মধ্যে পাঁচজনের সম্পৃক্ততা না পাওয়ায় ও প্রধান আসামি নিহত হওয়ায় তদন্ত কর্মকর্তা তাদের মামলা থেকে অব্যাহতির জন্য আদালতে আবেদন করেছেন।


মন্তব্য