kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


আখাউড়ায় আইনমন্ত্রী

বিদ্যুৎ এখন মানুষের পেছনে বিদ্যুতের মতো ছুটছে

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি   

৪ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



বিদ্যুৎ এখন মানুষের পেছনে বিদ্যুতের মতো ছুটছে

ফাইল ফটো

আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, ‘আগে বিদ্যুতের পেছনে মানুষ ছুটত। হারিকেন নিয়ে বাইরে বেরোতে হতো।

এখন মানুষের পেছনে বিদ্যুৎ ছুটছে বিদ্যুতের মতো। ২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর তিন হাজার ২০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন হতো। বর্তমান সরকারের আমলে ১২ হাজার মেগাওয়াটের বেশি বিদ্যুৎ উৎপাদন হচ্ছে। এখন আর বিদ্যুৎ নিয়ে কোনো সমস্যা হবে না। সন্ধ্যার পর পড়াশোনা করতে শিক্ষার্থীদের সমস্যা হবে না। ’

গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ার কর্মমঠ গ্রামে নতুন বিদ্যুৎ সংযোগের উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আইনমন্ত্রী এসব কথা বলেন। মন্ত্রী সুইচ টিপে ৭৪৮ জন গ্রাহকের বিদ্যুৎ সংযোগের উদ্বোধন করেন। পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির উদ্যোগে প্রায় সাড়ে ১৩ কিলোমিটার বিদ্যুৎ লাইন নির্মাণে প্রায় দুই কোটি টাকা ব্যয় হয়েছে।

এলাকার উন্নয়নসহ বিভিন্ন প্রসঙ্গে আনিসুল হক বলেন, ‘২০১৫ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত আমার এলাকার ৩১৭ জনকে চাকরি দিয়েছি। এ নিয়ে হাইকোর্টে রিট হয়েছে। একই এলাকার এত লোক কিভাবে চাকরি পায় এ নিয়ে রিট করা হয়েছে। আমি বলি, আমার এলাকার লোক যোগ্য। আর তাঁদের যোগ্যতা তাঁরা আমার এলাকার লোক। এ জন্যই তাঁদের চাকরি হয়। কোনোভাবেই এ চাকরি দেওয়া দমানো যাবে না। ’

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলের চেয়ারম্যান মনোনয়ন প্রত্যাশীদের উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, ‘ঢাকায় গিয়ে আমাকে সালাম দিলে মনোনয়ন পাওয়া যাবে না। জনগণের কাছে গিয়ে বঙ্গবন্ধুর কথা, জননেত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্নের কথা বলতে হবে। জনগণের কাছে গিয়ে তাঁদের উদ্বুদ্ধ করতে হবে। আর জনগণ যাকে চাইবেন তাঁকেই দলের মনোনয়ন দেওয়া হবে। ’

আইনমন্ত্রী বলেন, ‘আমি এলাকায় এসে শুনেছি রাস্তা করতে, বিদ্যুৎ সংযোগ দিতে এলাকার মানুষের কাছ থেকে টাকা নেওয়া হচ্ছে। আমি বলে দিচ্ছি, যদি এমন কথা আর শুনি তাহলে তাঁদের কী করতে হবে তা ভালো করেই জানি। আর যদি ভালো কাজ করেন তাহলে তাঁদের ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল হবে। ’

বিদ্যুৎ উদ্বোধন কমিটির সভাপতি মো. কামাল উদ্দিন ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য দেন আখাউড়া পৌরসভার মেয়র তাকজিল খলিফা কাজল। বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন আখাউড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক অধ্যক্ষ মো. জয়নাল আবেদীন, পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির জিএম মো. আব্দুল ওয়ালিদ। স্বাগত বক্তব্য দেন মো. সাজিদুর রহমান। অনুষ্ঠানে কসবা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আনিসুল হক ভূঁইয়া, আখাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আহসান হাবিব, আইনমন্ত্রীর এপিএস রাশেদুল কাওসার জীবন, আওয়ামী লীগ নেতা এম জি হাক্কানী, মো. সেলিম ভূঁইয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


মন্তব্য