kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ভোলা ও লক্ষ্মীপুরে সংঘর্ষ হামলা

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



ভোলা ও লক্ষ্মীপুরে সংঘর্ষ হামলা

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন সামনে রেখে ভোলা ও লক্ষ্মীপুরে প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ, হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ভোলার বোরহানউদ্দিনের দেউলা ইউনিয়নে বিএনপি ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের সঙ্গে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষ হয়েছে।

এ সময় দুই পক্ষ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মহড়া দিয়েছে। এ ঘটনায় অন্তত আটজন আহত হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। তবে ঘটনার জন্য এক পক্ষ অন্য পক্ষের ওপর হামলার অভিযোগ করেছে।

এর আগে গত সোমবার রাতে লক্ষ্মীপুরের কমলনগরের তোরাবগঞ্জ ইউনিয়নে বিএনপির প্রার্থীর বাড়িতে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর সমর্থকরা হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ইউপি সদস্যসহ দুজন আহত হয়েছে।

এদিকে মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগর, ময়মনসিংহের নান্দাইল,  যশোরের হৈবতপুর, ফেনীর ফুলগাজীতে প্রার্থী-সমর্থকদের সংঘর্ষ, দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে সড়ক অবরোধ, মনোনয়নপত্র জমাদানে বাধাসহ বিভিন্ন অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিস্তারিত আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদক ও  প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে — ভোলা : ভোলার বোরহানউদ্দিনের দেউলা ইউনিয়নের বিএনপিদলীয় প্রার্থী বাচ্চু মোল্লা ও স্বতন্ত্র প্রার্থী আকতার হোসেন অভিযোগ করে বলেন, ‘মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে দেউলা ইউনিয়নের দরুন বাজারে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মহিবুল্লাহর কর্মী আলম মৃধা, আনোয়ার মৃধা, আনছার, ফারুক, শহিদুল্লাহ, কাঞ্চন হেনাসহ দলীয় কর্মী-সমর্থকরা তাদের কর্মী-সমর্থকদের ওপর হামলা চালিয়েছে। হামলায় গিয়াসউদ্দিন, জাহাঙ্গীর, মিজানুর রহমান, আব্দুর রহমান, অনু বিশ্বাসসহ অন্তত আটজন আহত হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মহিবুল্লাহ কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘এ ধরনের কোনো খবর আমার জানা নেই। ’

এদিকে সদর উপজেলার শিবপুরে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম রাকিবকে হুমকি দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে গত সোমবার রাতে রতনপুর বাজারে উভয় প্রার্থীর লোকজন মিছিল-পাল্টামিছিল বের করে। এ নিয়ে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়।

লক্ষ্মীপুর : কমলনগরের তোরাবগঞ্জে বিএনপির প্রার্থী মোসলেহ উদ্দিনের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত সোমবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। মোসলেহ উদ্দিন অভিযোগ করে বলেন, ‘দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে বাসায় বসে কথা বলছিলাম। এ সময় আওয়ামী লীগ প্রার্থী ফয়সল আহমেদ রতনের সমর্থকরা হামলা চালায়। আমার বাসার সামনে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে অবস্থান নেয় তারা। তাদের চলে যেতে বললে ক্ষিপ্ত হয়ে বাড়ির দরজা ও জানালার কাচ ভাঙচুর করে। আর আমাকে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াতে হুমকি দেয়। ’

তবে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ফয়সল আহমেদ রতন এ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘আমার লোকজন বিএনপি প্রার্থীর বাড়িতে হামলা-ভাঙচুর করেনি। বরং বিএনপি প্রার্থীর লোকজন আমার সমর্থকদের ওপর হামলা করেছে। এ সময় ইউপি সদস্য আলমগীর ও স্বপন নামের দুজন আহত হয়েছে। ’ এ ব্যাপারে কমলনগর থানার ওসি কবির আহাম্মদ বলেন, আওয়ামী লীগ ও বিএনপির চেয়ারম্যান প্রার্থীদের লোকজনের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছিল। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে।

এ ছাড়া মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরে তৃণমূল আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীকে বাদ দিয়ে অন্য প্রার্থীকে মনোনয়ন দেওয়ার প্রতিবাদে গতকাল দ্বিতীয় দিনের মতো ঢাকা-দোহার সড়ক অবরোধ করেছে নেতাকর্মীরা। ময়মনসিংহের নান্দাইলে আওয়ামী লীগের দুই প্রার্থীই দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন। ফলে দুুই পক্ষই যার যার অবস্থান থেকে কেন্দ্রীয় নির্দেশ পেয়েই কার্যক্রম চালাচ্ছেন। এ নিয়ে নেতাকর্মীদের মাঝে ধূম্রজাল সৃষ্টি হয়েছে। যশোর সদর উপজেলার হৈবতপুর ইউনিয়নসহ কয়েক স্থানে বিএনপির প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র জমাদানে বাধা দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল দুপুরে বিএনপির জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাবেরুল হক সাবু জানান, তাঁদের মনোনীত প্রার্থীকে জিম্মি করে রাখা হয়েছে। ফেনীর ফুলগাজী উপজেলার আনন্দপুর ও দরবারপুরে বিএনপি প্রার্থীর কাছ থেকে মনোনয়নপত্র ছিনিয়ে নেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল বিকেল ৫টার দিকে ঘটনাগুলো ঘটে।


মন্তব্য