kalerkantho

মরণফাঁদ

পিরোজপুর প্রতিনিধি   

২ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



পিরোজপুরের ইন্দুরকানিতে সড়ক ও জনপথ বিভাগের ১০ কিলোমিটার সড়ক দীর্ঘদিন ধরে সংস্কার না করায় মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে। টগড়া মোড় থেকে কলারন খেয়াঘাট পর্যন্ত ১৭ কিলোমিটার সড়কের মধ্যে ভবানীপুর কওমি মাদরাসা থেকে কলারন খেয়াঘাট পর্যন্ত ১০ কিলোমিটার সড়কের ৯৫ শতাংশই নষ্ট হয়ে গেছে। পুরো সড়কটিতে কোথাও নেই কালো পিচের আস্তর। অসংখ্য গর্ত আর গর্ত। দেখে বোঝার উপায় নেই সড়কটি পাকা।

প্রতিদিন এ সড়ক দিয়ে ঢাকা, চট্টগ্রাম, খুলনা, বেনাপোল, বরিশাল, পিরোজপুরসহ দূরপাল্লা ও অভ্যন্তরীণ রুটের শত শত গাড়ি চলাচল করছে। এ সড়ক দিয়েই ইন্দুরকানি উপজেলার হাজার হাজার মানুষ জেলা শহর ও উপজেলা সদরসহ স্কুল-কলেজ ও হাসপাতালে যাতায়াত করে। এ ছাড়া এমনিতেই সড়কটি অপ্রশস্ত, তার ওপর দুপাশের পাড় ভেঙে যাওয়ায় দুটি গাড়ি ক্রসিং করে যেতে বেগ পেতে হয়। ক্রসিংয়ের সময় বাস ট্রাক খাদে বা রাস্তার বাইরে ছিটকে পড়ার মতো ঘটনাও ঘটছে অহরহ। সড়কে গর্তের মধ্যে পড়ে বিভিন্ন যানবাহন আটকে যাত্রীদের ভোগান্তির ঘটনা তো হরহামেশাই ঘটে। বছরের পর বছর সড়কটি এভাবে পড়ে থাকলেও তা সংস্কারের কোনো উদ্যোগ নেয়নি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। ফলে মাঝেমধ্যেই ঘটছে ছোট-বড় দুর্ঘটনা। তা ছাড়া এ সড়কটিতে বাঁক রয়েছে ১৮টি। এর মধ্যে ১২টিই অধিক ঝুঁকিপূর্ণ।

এ ব্যাপারে পিরোজপুর সড়ক ও জনপথ বিভাগের উপ প্রকৌশলী মোহাম্মদ হামিদুর রহমান বলেন,

‘১০ কোটি ৫০ লাখ টাকার একটি প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে। এ বছরের জানুয়ারি অথবা ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথমে কাজটি শুরু হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।’



মন্তব্য