kalerkantho


কর স্বর্গে লুকানো অর্থ বিশ্ব জিডিপির ১০%

বাণিজ্য ডেস্ক   

১২ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:০০



কর স্বর্গে লুকানো অর্থ বিশ্ব জিডিপির ১০%

ট্যাক্স হেভেনস বা কর স্বর্গগুলোতে বিভিন্ন দেশের ধনীদের যে অর্থ রয়েছে তা বিশ্ব জিডিপির অন্তত ১০ শতাংশ। যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিষ্ঠান ন্যাশনাল ব্যুরো অব ইকোনমিক রিসার্চের (এনবিইআর) এক গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০১৫ সালের হিসাবে বিশ্বের কর স্বর্গগুলোতে লুকানো অর্থের পরিমাণ ছিল ৮.৬৪ ট্রিলিয়ন ডলার, যা বিশ্ব জিডিপির ১০ শতাংশ।

প্রতিবেদনে বলা হয়, কর স্বর্গ হিসেবে বিবেচিত অফশোর ব্যাংক বা দেশগুলো তাদের হিসাবধারীদের তথ্য খুব কমই প্রকাশ করে। ফলে এটি বোঝা কঠিন ঠিক কী পরিমাণে অর্থ কর স্বর্গগুলোতে রয়েছে। অর্থের পরিমাণ অনুমানের চেয়েও অনেক বেশি হতে পারে। মূলত পানামা পেপারস নামে পরিচিত দলিলপত্র ফাঁস হওয়ার পরই বিশ্বের ধনী ও ক্ষমতাশালী ব্যক্তিদের কর ফাঁকির উদ্দেশ্যে কর স্বর্গ বিবেচিত বিভিন্ন দেশ ও ব্যাংকে অর্থ জমা রাখার বিষয়টি আলোচনায় উঠে আসে।

লন্ডনের স্কুল অফ অরিয়েন্টাল অ্যান্ড আফ্রিকান স্টাডিজের অর্থনীতির শিক্ষক মুশতাক খান বলেন, অনেক ছোট ছোট দেশ আছে যেখানে করের হারই শুধু কম নয়, ব্যাংকিং গোপনীয়তা আছে এবং বিধিনিষেধ অনেক শিথিল। এসব দেশে টাকা নেওয়া এবং রাখা আকর্ষণীয় দুটি কারণে।

প্রথমত, অনেক বৈধ কম্পানি তাদের আন্তর্জাতিক কর কমানোর জন্য এসব দেশে টাকা জমা রাখে। এটা বেআইনি নয়, কিন্তু নৈতিকভাবে সমালোচনা যোগ্য। কারণ যে দেশে তারা টাকা বানাচ্ছে সেসব দেশে কর না দিয়ে এমন সব দেশে রাখছে যেখানে তাদের কম কর দিতে হয়।

তিনি বলেন, এর পাশাপাশি কিছু লোক সম্পূর্ণ বেআইনিভাবে টাকা করেছে, লুট করেছে বা চুরি করেছে। তারাও এসব স্থানে টাকা রাখে। তাদের উদ্দেশ্য শুধু কর কম দেওয়া নয়, তাদের উদ্দেশ্য চুরি করা টাকাটা লুকিয়ে রাখা।

বিশ্বের কর স্বর্গগুলোর অন্যতম ‘লুক্সেমবার্গ’। ইউরোপীয় এ দেশটির ব্যবসাবান্ধব আইনের কারণে আন্তর্জাতিক কম্পানিগুলো এ দেশে তাদের ব্যবসার একটি ছোট অংশ বিনিয়োগ করে থাকে। এর উদ্দেশ্য আসলে কর হিসেবে শত শত কোটি ডলার ফাঁকি দেওয়া। ইউএস ফরচুন তালিকাভুক্ত ৫০০ কম্পানির ৩৩ শতাংশের লুক্সেমবার্গের শাখা রয়েছে।

ক্যারিবীয় অঞ্চলের ব্রিটিশ ‘কেম্যান আইল্যান্ড’ ধনকুবের আর বহুজাতিক কম্পানির কর ফাঁকির সবচেয়ে বড় স্বর্গ। কোনো ধরনের কর ছাড়াই করপোরেট কম্পানি প্রতিষ্ঠা ও এর সম্পদ জমা রাখার সুযোগ দেয় দেশটি। ইংল্যান্ড ও আয়ারল্যান্ডের মাঝে অবস্থিত ‘আইল অব ম্যান’ আরেকটি কর স্বর্গ। এ দেশে বিনিয়োগের আয়, উত্তরাধিকার সূত্রে সম্পদ, করপোরেশন এবং স্ট্যাম্প ট্যাক্স দিতে হয় না। এ ছাড়া কর স্বর্গগুলোর মধ্যে আরো রয়েছে সুইজারল্যান্ড, জার্সি, আয়ারল্যান্ড, মরিশাস, বারমুডা, মোনাকো, বাহামা ইত্যাদি। বিবিসি, ফোর্বস ম্যাগাজিন।



মন্তব্য