kalerkantho


শেয়ার দাম কমেছে ৭৭% ব্যাংকের

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



আগামী নির্বাচনকে ঘিরে নানামুখী গুঞ্জনে স্থির হতে পারছে না বিনিয়োগকারীরা। যার জন্য কোনো কম্পানির শেয়ারে স্বল্প মুনাফা পেলেই বিক্রি করছে বিনিয়োগকারীরা। দীর্ঘমেয়াদি কোনো বিনিয়োগ না আসায় পুঁজিবাজারও হ্রাস-বৃদ্ধির মধ্যেই চলছে।

সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক ও বেশির ভাগ কম্পানিরই শেয়ার দাম কমেছে। যদিও আগের দিনের চেয়ে লেনদেন কিছুটা বেড়েছে। আর লেনদেন হওয়া ৭৭ শতাংশ ব্যাংকের শেয়ার দাম কমেছে। অন্য বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) মূল্যসূচক কমলেও বেড়েছে লেনদেন। বেশির ভাগ কম্পানির শেয়ার দামও হ্রাস পেয়েছে।

ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৮২৬ কোটি ১৬ লাখ টাকা। আর মূল্যসূচক কমেছে ৩৮ পয়েন্ট। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৮২৪ কোটি ৭১ লাখ টাকা। আর মূল্যসূচক বেড়েছিল ৩২ পয়েন্ট। সেই হিসাবে সূচক কমলেও লেনদেন বেড়েছে।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, লেনদেন শুরুর পর মূল্যসূচক কিছুটা ঊর্ধ্বমুখী হলেও পরবর্তীতে হ্রাস পেয়েছে। দিন শেষে কমার মধ্য দিয়ে সূচক দাঁড়ায় পাঁচ হাজার ৪৬৭ পয়েন্ট। ডিএস-৩০ মূল্যসূচক ১০ পয়েন্ট কমে এক হাজার ৯০১ পয়েন্ট ও ডিএসইএস শরিয়াহ সূচক প্রায় ৬ পয়েন্ট কমে এক হাজার ২৫৫ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। লেনদেন হওয়া ৩৩৮ কম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ৮২টির, কমেছে ২২২টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৪ কম্পানির শেয়ারের দর।

লেনদেনের ভিত্তিতে শীর্ষে রয়েছে খুলনা পাওয়ার। কম্পানিটির লেনদেন হয়েছে ৮৭ কোটি ৬১ লাখ টাকা। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ইফাদ অটোসের লেনদেন হয়েছে ৬০ কোটি ১৫ লাখ টাকা। আর ৩৫ কোটি ৪৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন করে তৃতীয় স্থানে রয়েছে অ্যাক্টিভ ফাইন। অন্যান্য শীর্ষ কম্পানি হচ্ছে বিবিএস কেবলস, শাশা ডেনিমস, আমান ফিড, ইউনাইটেড পাওয়ার, ফরচুন সুজ, ন্যাশনাল হাউজিং ও কনফিডেন্স সিমেন্ট।

দাম বৃদ্ধির শীর্ষে রয়েছে প্রগতি লাইফ ইনস্যুরেন্স, এমএল ডায়িং, জনতা ইনস্যুরেন্স, শাশা ডেনিমস, ভিএফএস থ্রেড, ন্যাশনাল টিউবস, ইফাদ অটোস, বারাকা পাওয়ার, ইউনাইটেড ইনস্যুরেন্স ও বিবিএস কেবলস।

সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৩৪ কোটি ৪০ লাখ টাকা। আর সূচক কমেছে ৩৭ পয়েন্ট। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৩১ কোটি ৬২ লাখ টাকা। আর সূচক বেড়েছিল ৬৭ পয়েন্ট। বৃহস্পতিবার লেনদেন হওয়া ২৩৯ কম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ৭৩টির, দাম কমেছে ১৪৬টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ২০ কম্পানির শেয়ারের দাম।



মন্তব্য